• ট্রাম্প এসে বিহারকে বিশেষ রাজ্যের মর্যাদা দেবেন না, খোঁচা তেজস্বীর 
    বর্তমান, 18 October 2020
  • পাটনা: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এসে বিহারকে বিশেষ রাজ্যের মর্যাদা দেবেন না। শনিবার এভাবেই রাজ্য ও কেন্দ্রের এনডিএ সরকারকে খোঁচা দিলেন আরজেডি নেতা তেজস্বী যাদব। এদিন বিরোধী মহাজোট তাদের নির্বাচনী ইস্তাহার প্রকাশ করে। সেখানে বিহারের জন্য বিশেষ রাজ্যের মর্যাদা আদায়, ১০ লক্ষ সরকারি চাকরি এবং কেন্দ্রের বিতর্কিত কৃষি আইন বাতিল সহ একঝাঁক প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে। ইস্তাহার প্রকাশের পর এদিন সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন তেজস্বী। বিরোধী মহাজোটের মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থীর বক্তব্য, গত ১৫ বছর ধরে রাজ্য চালাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার। কিন্তু বিহারের জন্য বিশেষ রাজ্যের মর্যাদা এখনও জোটেনি। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আসবেন না বিশেষ রাজ্যের মর্যাদা দেওয়ার জন্য। উল্লেখ্য, গত ফেব্রুয়ারি মাসে ভারত সফরে এসে প্রধানমন্ত্রী মোদির সঙ্গে মেগা র‌্যালি করেছিলেন ট্রাম্প। সেই প্রসঙ্গ টেনে এনেই বিজেপি ও নীতীশ কুমারের দলের জোটকে একযোগে খোঁচা দিলেন লালু-পুত্র।

    বিহারে নীতীশ কুমারের নেতৃত্বে ১৫ বছরের উন্নয়নকে সামনে রেখেই ভোটের প্রচার চালাচ্ছে বিজেপি-জেডিইউ জোট। ক্ষমতাসীন জোটের এই প্রচারকে এদিন কটাক্ষ করতে ছাড়েননি তেজস্বী। তাঁর বক্তব্য, জেডিইউ-বিজেপি বিহারকে পিছন থেকে ছুরি মেরেছে। রাজ্যে অপরাধ ও বেকারত্ব বৃদ্ধি পেয়েছে। যদিও ২০১৫ সালে প্রধানমন্ত্রী মোদি এখানে এসে যে প্রতিশ্রুতিগুলি দিয়েছিলেন তার কিছুই পূরণ হয়নি। হাজারো প্রতিশ্রুতির সঙ্গেই তিনি বলেছিলেন, মতিহারীর চিনিকলে এসে তিনি চিনি দেওয়া চা খাবেন। সেটুকুও করে উঠতে পারেননি প্রধানমন্ত্রী। মতিহারীর চিনিকল এখনও বন্ধ। বিহারের চিনিকল, পাটকল, পেপার মিল, চালকল— সবই বন্ধ। উল্লেখ্য, ক’দিন আগেই বিহারে প্রচারে এসে বিজেপি সভাপতি জে পি নাড্ডা বলেছিলেন, মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের হাতে রাজ্য ও প্রধানমন্ত্রী মোদির হাতে দেশ নিরাপদ। নাড্ডার ওই মন্তব্যকে এদিন তীব্র কটাক্ষ করেন তেজস্বী। নীতীশ কুমার জেডিইউ-বিজেপির ‘ডাবল ইঞ্জিন’ সরকার চালাচ্ছেন।

    ২০০৫ সালে নীতীশ কুমার মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পর থেকে বিহারের জন্য বিশেষ রাজ্যের মর্যাদা প্রদানের ইস্যুতে বারবার সামনে আনা হয়েছে। কিন্তু এখনও তা পূরণ না হওয়ায় এবার বিরোধী মহাজোটের ইস্তাহারে এই ইস্যুটিকে জায়গা দিয়ে নীতীশের উপর চাপ তৈরির কৌশল নেওয়া হল। পাশাপাশি তেজস্বীর বক্তব্য, আমরা ক্ষমতায় এলে মন্ত্রিসভার প্রথম বৈঠকেই ১০ লক্ষ সরকারি চাকরির ঘোষণা করা হবে। -পিটিআই 
  • Link to News (বর্তমান)