• গরবা নাচের সময় অস্বস্তির পর ৩৫ বছরের মণীশের মৃত্যু, দুঃসংবাদের পর প্রয়াত বাবাও
    হিন্দুস্তান টাইমস | ০৩ অক্টোবর ২০২২
  • নবরাত্রি উপলক্ষ্যে গরবা নাচের সময় তিনি শরীরে অস্বস্তিবোধ করেন। এরপর হাসপাতালে ভয়াবহ হার্ট অ্যাটাকের জেরে মৃত্যু হয় ৩৫ বছর বয়সী মণীশ কুমার জৈনের।

    মণীশদের হাউজিং সোসাইটিতে চলছিল গরবা। আচমকাই তাঁর শরীরে অস্বস্তি হতে থাকে। সঙ্গে সঙ্গে অটো রিক্সায় করে তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করতে নিয়ে যাওয়া হয়, অটোতে ছিলেন তাঁর বাবা ও ভাই। এখানেই শেষ নয়। পরিবারে দুঃখের ছায়া ঘন করে ছেলের মৃত্যু সংবাদ শোনা মাত্রই মৃত্যু হয় তাঁর বাবারও।

    ছেলে মণীশ হাসপাতালে মৃত্যুর কোলে ঢোলে পড়েছেন শুনেই সেই দুঃখ নিতে না পেরে অটোতে ৬৫ বছর বয়সী নরপথ জৈনের মৃত্যু হয়। ঘটনা ঘিরে শোকের ছায়া নেমে এসেছে পরিবারে। এই ঘটনা মহারাষ্ট্রের পলঘরের। সেখানের সঞ্জিবনী হাসপাতালে মণীশের মৃত্যু হয়।

    মণীশকে যখন হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে, তখনই তিনি ঢলে পড়েন। সেই সময় অটো রিকসাকে টাকা মেটাচ্ছিলেন নরপথ। ছোটছেলে রাহুল তখন দাদা মণীশের পরিস্থিতি দেখে বাবাকে চিৎকার করে ডাকেন। আর সেই মুহূর্তেই বাবা নরপথেরও মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এদিকে, ঘটনা ঘিরে পুলিশ তদন্তে নেমেছে। ১৭৪ ধারায় দায়ের হয়েছে মামলা। পুলিশ জানিয়েছে, অটোপসি রিপোর্ট দেখে, তবেই এই মামলা নিয়ে কিছু ভিত্তিযুক্ত তথ্য দেওয়া যাবে।গোটা ঘটনার তদন্ত চলছে বলেও জানা গিয়েছে।
  • Link to this news (হিন্দুস্তান টাইমস)