• ‘সবার জন্যই এক বিচার হওয়া উচিত’, শুভেন্দুর গ্রেফতারির পক্ষে সওয়াল ম্যাথুর
    ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস, 18 May 2021
  • প্রাক্তন নারদ-কর্তা বললেন, ‘বিচার পেতে অনেকটা সময় লেগে গেল। কিন্তু দেরি হলেও বিচার হয়েছে’।  বিধানসভা ভোটের তখন আর খুব বেশি দেরি নেই। ২০১৬ সালে নারদা স্টিং অপারেশন ঘিরে শোরগোল পড়ে গিয়েছিল বঙ্গ রাজনীতিতে। রাতারাতি খবর শিরোনামে উঠে এসেছিলেন ম্যাথু স্যামুয়েল। 

    গোপন ক্যামেরায় ঘুষ নিতে দেখা গিয়েছিল প্রাক্তন তৃণমূল নেতা, এখন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি মুকুল রায়, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, সুলতান আহমেদ, সৌগত রায়, শুভেন্দু অধিকারী, কাকলি ঘোষ দস্তিদার, প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়, শোভন চট্টোপাধ্যায়, মদন মিত্র, ইকবাল আহমেদ, ফিরহাদ হাকিম, পুলিশ আধিকারিক এমএইচ আহমেদ মির্জাকে।

    কিন্তু ঘটনা হল, ২০১৬ সালে বিপুল ভোটে জিতে দ্বিতীয়বারের জন্য রাজ্যে সরকার গঠন করে তৃণমূলই। এরপর গঙ্গা দিয়ে অনেক জল গড়িয়ে গিয়েছে। প্রথমে মুকুল রায়, তারপর একুশের ভোটের মুখে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন শুভেন্দু অধিকারীও।

    এদিকে এবছরের ১৭ মার্চ আবার নারদা মামলায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে FIR দায়ের করে CBI-কে তদন্ত চালিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেয় কলকাতা হাইকোর্ট। রাজ্য যখন এই রায়ে স্থগিতাদেশ জারির আর্জি জানিয়ে পাল্টা সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়, তখন সেই  আবেদন পত্রপাঠ খারিজ করে দেয় শীর্ষ আদালত।

    শেষপর্যন্ত এদিন সকালে ফিরহাদ হাকিম, সুব্রত মুখোপাধ্যায়,  মদন মিত্র, এমনকী কলকাতার প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়কেও গ্রেফতার করল CBI।

    কী প্রতিক্রিয়া ম্যাথু স্যামুয়েলের? তিনি বলেন, ‘বিচার পেতে অনেকটা সময় লেগে গেল। কিন্তু, দেরি হলেও বিচার হয়েছে। আজ চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে শুভেন্দু অধিকারীও তো আমার থেকে টাকা নিয়েছেন। সেটা রেকর্ড করাও হয়েছে। তাহলে তাঁকে গ্রেফতার করা হল না কেন? সবার জন্যই এক বিচার হওয়া দরকার।’

    ‘Why not Suvendu’, Matthew Samuels asks over Narada arrest, State:
  • Link to News (ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস)