• বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসের ভিতর থেকে উদ্ধার মহিলার দেহ, তদন্তে পুলিশ
    হিন্দুস্তান টাইমস | ২১ নভেম্বর ২০২৩
  • সম্প্রতি যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় কাণ্ডে তোলপাড় হয়ে উঠেছিল রাজ্য রাজনীতি। সেই ঘটনার তদন্ত এখনও চলছে। তারই মধ্যে এবার বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস থেকে উদ্ধার হল এক মহিলার মৃতদেহ। যদিও মহিলার নাম পরিচয় জানা যায়নি। তবে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক আতঙ্ক ছড়িয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়া মধ্যে। ক্যাম্পাসে অবস্থিত একটি পরিখা থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার হয়েছে। যা ঘিরে শোরগোল পড়ে গিয়েছে।

    পুলিশ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার সকালে বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিখা থেকে মহিলার মৃতদেহ উদ্ধার হয়েছে। এদিন সকালে নিরাপত্তারক্ষীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিতরে দক্ষিণ পরিখার জলে ওই মৃতদেহ ভেসে থাকতে দেখেন।  সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের দায়িত্বে থাকা অন্যান্য নিরাপত্তাকর্মীরা। এরপর বর্ধমান থানায় খবর দেওয়া হয়। খবর পেয়ে বর্ধমান থানার পুলিশ পরিখার দক্ষিণ পাড়ের জল থেকে উদ্ধার করে অজ্ঞাত পরিচয় ওই মহিলার মৃতদেহ। জানা গিয়েছে, মৃতের আনুমানিক বয়স ৩০ বছরের কাছাকাছি। পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পুলিশমর্গে পাঠায়। ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল‍্য ছড়িয়ে পড়ে এলাকাজুড়ে । পুলিশ পুরো ঘটনার তদন্তে নেমেছে। যদিও এই ঘটনায় মহিলার পরিচয় এখনও জানা যায়নি। তবে মহিলা বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়া কিনা সে বিষয়টিও নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। ইতিমধ্যে ক্যাম্পাসের মধ্যে মহিলার মৃতদেহ উদ্ধার হওয়ায় নিরাপত্তা নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন। কীভাবে মৃতদেহ সেখানে এল? সে ক্ষেত্রে মহিলাকে খুন করা হয়েছিল কিনা সে বিষয়টিও খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

    মৃতার পরিচয় জানার চেষ্টা করছে পুলিশ। যদিও এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের তরফে কিছু জানানো হয়নি। তবে ঘটনার পর থেকেই আতঙ্কিত রয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক পড়ুয়া। নাম প্রকাশে অনিচ্ছু এক পড়ুয়ার দাবি, কার মৃতদেহ উদ্ধার হয়েছে তা এখনও জানতে পারা যায়নি। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসের ভিতর থেকে যেহেতু মৃতদেহ উদ্ধার হয়েছে সে ক্ষেত্রে মৃতদেহটি কোনও ছাত্রীর হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনায় পড়ুয়াদের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। ইতিমধ্যেই এই ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।
  • Link to this news (হিন্দুস্তান টাইমস)