• Neymar, FIFA World Cup 2022: নতুন চুলের ছাঁট নিয়ে কাতারে হাজির নেইমার, গোল করবেন তো?
    ২৪ ঘন্টা | ২৫ নভেম্বর ২০২২
  • জি ২৪ ঘণ্টা ডিজিটাল ব্যুরো: ব্রাজিলের (Brazil) 'পোস্টার বয়'-কে তো এমনভাবেই দেখতে চেয়েছে ফুটবল দুনিয়া। এমনটাই তো হওয়ার কথা ছিল! বিশ্বকাপে (FIFA World Cup 2022) প্রথম ম্যাচে মাঠে নামবেন আর নেইমারের (Neymar jr) চুলে নতুন ছাঁট দেখা যাবে না, সেটা হয় কীভাবে! চার বছর আগে রাশিয়া বিশ্বকাপে (FIFA World Cup 2018) তাঁর চুলের ছাঁটের সঙ্গে এবারের হেয়ার কাটের মিল একেবারেই নেই। আর সেটা হবেই বা কেমন করে। তারকা ফুটবলার নেইমার যে আবার 'প্লে বয়'। তাঁর অগণিত বান্ধবী। তাঁদের সঙ্গে সময় কাটাতে হলে বাহারি চুলের ছাঁট যে বাধ্যতামূলক! একবার ২০১৮ সালের তো চুলের বাহার দেখাতে গিয়ে এক অদ্ভুত কান্ড ঘটিয়ে ফেলেছিলেন। মাত্র দুই সপ্তাহে বচারবার হেয়ার স্টাইল বদলে ফেলেছিলেন তিতে-র প্রধান অস্ত্র। সেটা নিয়ে তখন কত আলোচনা–সমালোচনা হল। এবারও সেই পথেই হাঁটলেন ব্রাজিলের তারকা। সার্বিয়ার বিরুদ্ধে আর কিছুক্ষণ পরেই মাঠে নামেবেন। সঙ্গে নতুন চুলের ছাঁট নিয়ে।

    ব্রাজিলের সংবাদমাধ্যম ‘গ্লোবো’ জানিয়েছে, তুরিনে বিশ্বকাপের ক্যাম্প শেষ হয়ার পর, কাতারের বিমান ধরার আগে চুলে নতুন ছাঁট দিয়েছিলেন নেইমার–ভিসিসিয়ুসরা। কিন্তু নেইমার বোধ হয় সেই ছাঁটেও সন্তুষ্ট হতে পারেননি। তাই বিশ্বকাপে মাঠে নামার আগে আবারও সেলুনে গিয়েছিলেন তিনি। তবে শুধু চুলের ছাঁট নয়। তাঁর কাছ থেকে সবাই একের পর এক গোলের আশা করছেন।

    নেইমারের এই নতুন চুলের ছাঁট ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন তাঁর ব্যক্তিগত হেয়ার স্টাইলিস্ট নারিকো। আসল নাম দেইলসন দস রেইস হলেও তিনি নারিকো নামেই পরিচিত। নেইমারের পাশে দাঁড়িয়ে একটি ছবি তুলে নিজের পোস্টে নারিকো লিখেছেন, 'আস্থা রাখার জন্য ধন্যবাদ নেইমার। এই মুহূর্তের সঙ্গী হতে পেরে গর্ব বোধ করছি। বিশ্বকাপে ব্রাজিলের প্রথম দিন। ঈশ্বর তোমার ব্রাজিল দলের সহায় হোন।'

    এই নারিকোকে নিয়েই কাতারে গিয়েছেন নেইমার। সেখানে গিয়ে চুলে নতুন ছাঁট দিয়ে হাসিমুখে ছবিও তুলেছেন ব্রাজিল তারকা। সবশেষ ২০১৮ বিশ্বকাপেও নারিকোকে নিজের সঙ্গে রাশিয়ায় নিয়ে গিয়েছিলেন নেইমার। ব্রাজিলের সংবাদমাধ্যম ‘ফোলহা দে পেরনাম্বুচো’ জানিয়েছে, ২০১৫ সাল থেকে নেইমারের ব্যক্তিগত হেয়ার স্টাইলিস্ট নারিকো। তবে ব্যক্তিগত এই হেয়ারস্টাইলিস্টের কাছে ভিনিসিয়ুস, রিচার্লিসন, লুকাস পাকেতারাও গিয়ে থাকেন।

    রাশিয়া বিশ্বকাপে দুই সপ্তাহের মধ্যে চারবার চুলের ছাঁট ও রং পাল্টে আলোচনার পাশাপাশি সমালোচিতও হয়েছিলেন নেইমার। প্রথমে লম্বা সোনালি চুল নিয়ে হাজির হয়েছিলেন, সেটা অবশ্য ‘নুডলস’ নামেই বেশি পরিচিতি পেয়েছিল। তখন টুইটারে একটি মন্তব্য বেশ আলোচিত হয়েছিল। এক ফুটবলপ্রেমী লিখেছিলেন, 'দেখে মনে হচ্ছে নেইমারের মাথার ওপর একবাটি পাস্তা সাজিয়ে রাখা হয়েছে।' পরে সেই চুল একটু ছোট করেন, তারপর চুলে হালকা সোনালি ঘাসের রং নিয়ে আসেন নেইমার। এরপর মেক্সিকো ম্যাচের আগে সোনালি রংটা ঢেকে দেন কালো রঙে। এবার বিশ্বকাপের আগমুহূর্তে ছাঁট দিলেন দুইবার। সামনে কী অপেক্ষা করছে, সেটা শুধু নেইমারই জানেন!
  • Link to this news (২৪ ঘন্টা)