• PM Awas Yajana: আবাস যোজনার টাকা বরাদ্দ করল কেন্দ্র, রাজ্যকে দেওয়া হল কড়া শর্ত
    ২৪ ঘন্টা | ২৫ নভেম্বর ২০২২
  • সুতপা সেন: শর্ত সাপেক্ষে রাজ্যকে আবাস যোজনার টাকা বরাদ্দ করল কেন্দ্র। প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা নামই ব্যবহার করতে হবে রাজ্যকে। মোট ১১ লাখ বাড়ি তৈরির জন্য কেন্দ্র বরাদ্দ করল ৮,২০০ কোটি টাকা। উল্লেখ্য,মুখ্যমন্ত্রী বারেবারেই বলে আসছেন কেন্দ্র রাজ্যের প্রাপ্য টাকা দিচ্ছে না। একশো দিনের কাজ থেকে অনেক প্রকল্পের টাকা আটকে দিয়েছে কেন্দ্র। এমনকি সম্প্রতি জঙ্গলমহল সফরে গিয়ে সাধারণ মানুষ তাঁকে কাছে পেয়ে পেয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। এবার সেই সমস্যার কিছুটা সমাধান হল। তবে শর্ত বেঁধে দিয়েছে কেন্দ্র।

    কিছুদিন আগেই কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রী গিরিরাজ সিংয়ের কাছে গিয়ে রাজ্যের পঞ্চায়েত মন্ত্রী প্রদীপ মজুমদার বৈঠক করে এসেছিলেন। তখনই আন্দাজ করা গিয়েছিল, রাজ্যের বরাদ্দ নিয়ে কেন্দ্র-রাজ্য টানাপোড়েনের বরফ হয়তো গলতে চলেছে। সূত্রের খবর, রাজ্য সরকারের তরফে মন্ত্রী বিস্তারিত তথ্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর কাছে তুলে ধরেন। কেন্দ্রকে জানিয়ে দেওয়া হয় কেন্দ্রের দেওয়া শর্ত মেনেই কাজ করছে রাজ্য সরকার। কেন্দ্রের স্পষ্ট বক্তব্য, কেন্দ্রীয় টাকায় বাংলার বাড়ি, বাংলার আবাস যোজনা নাম দিয়ে যে প্রকল্পগুলো হচ্ছে তা চালানো যাবে না। কারণ মূল প্রকল্প, যেখানে কেন্দ্র ও রাজ্যে যৌথভাবে টাকা দেয় তার নাম প্রধানমন্ত্রী আবাস য়োজনা। ওই যোজনায় কেন্দ্র ৬০ শতাংশ ও রাজ্য সরকার ৪০ শতাংশ টাকা দেয়। পঞ্চায়েত মন্ত্রী জানিয়ে দেন প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা না দিয়েই প্রকল্প হবে। এরপরই এপ্রিল মাস থেকে আটকে রাখা টাকা ছেড়ে দেয় কেন্দ্র।

    কেন্দ্রের ওই সিদ্ধান্ত নিয়ে তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ বলেন, এটা কার্যত জুলুম করা হচ্ছে। কারণ দিল্লির সরকারও আগের সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পের নাম বদল করেছে। কেন্দ্রের টাকা বলে যা বলা হচ্ছে তা কি কেন্দ্রের সম্পত্তি? বহু কেন্দ্রীয় প্রকল্পে কিছু টাকা কেন্দ্র দেয়। কিছুটা দেয় রাজ্য সরকার। তাহলে তো প্রধানমন্ত্রী-মুখ্যমন্ত্রী যোজনা হওয়া উচিত। হাতে ক্ষমতা রয়েছে বলে জুলুম করা এটা অত্য়ন্ত আপত্তিজনক। কেন্দ্রের টাকা মানে রাজ্যগুলির করের টাকা।

    অন্যদিকে, এনিয়ে সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন, কেন্দ্র টাকা দেবে না বলে মুখ্যমন্ত্রী বাহানা করছিলেন। আমরা বারবার বলছিলাম আমাদের প্রাপ্য টাকা দিতে হবে। সেই টাকা দেওয়ার কথা আজ জানিয়েছে কেন্দ্র। মুখ্যমন্ত্রী অযথা ছায়ার সঙ্গে যুদ্ধ করার ভাব দেখিয়ে একটা বিজেপি বিরোধী ভাবমূর্তি তৈরি করছিলেন। আসলে বিজেপির সঙ্গে ওঁর সুসম্পর্কের কথা সবাই জানে। সেই কারণে কেন্দ্র টাকা রিলিজ করল।
  • Link to this news (২৪ ঘন্টা)