• TMC: রাজধানী এক্সপ্রেসে সোনা পাচার? গ্রেফতার তৃণমূল নেতার ছেলে!
    ২৪ ঘন্টা | ২৫ নভেম্বর ২০২২
  • বিক্রম দাস: সোনার পাচারচক্রের 'কিংপিন'? শুল্ক দফতরের আধিকারিকদের হাতে গ্রেফতার তৃণমূল নেতার ছেলে। সঙ্গে শ্য়ালকও। ধৃতদের আদালতে পেশ করে হেফাজতে নেওয়ার আর্জি জানালেন তদন্তকারীরা।

    একসময়ে উত্তর ২৪ পরগনার বনগাঁ পুরসভার চেয়ারম্যান ছিলেন তৃণমূল নেতা শঙ্কর আঢ্য। সোনার পাচারের অভিযোগে তাঁর শুভ আঢ্য ও শ্যালক অমিত ঘোষকে গ্রেফতার করেছেন শুল্ক দফতরের গোয়েন্দারা। পঞ্চায়েত ভোটের আগে অস্বস্তিতে রাজ্যের শাসকদল।

    ঘটনাটি ঠিক কী? শুল্ক দফতর সূত্রে খবর, গত এপ্রিল মাসে রাজধানী এক্সপ্রেসে সোনা পাচারকাণ্ডে তদন্ত চলছে। গ্রেফতার করা হয়েছে অনুপম পাত্র ও অলীক দাস নামে দু'জনকে। ধৃতদের যখন জিজ্ঞাসাবাদ করতে শুরু করেন, তখনই অমিত ঘোষের নাম উঠে আসে। এদিন সকালে তাঁকে ডেকে পাঠান তদন্তকারী। দীর্ঘক্ষণ ধরে চলে জিজ্ঞাসাবাদ। শেষপর্যন্ত অমিত ও তাঁর ভাগ্নে, তৃণমূল নেতা শঙ্কর আঢ্যের ছেলে শুভকে গ্রেফতার করা হয়।

    চলতি বছরের এপ্রিল শিয়ালদহ স্টেশনে দিল্লিগামী রাজধানী এক্সপ্রেস থেকে ৪ কেজি সোনা পাওয়া যায়। তদন্তকারীদের দাবি, এই সোনার পাচারচক্রের কিংপিন শুভ ও অমিতই! তাদের খোঁজ চালাচ্ছিল পুলিস। অবশেষে ধরা পড়ল দু'জনই।

    এদিকে মালদহে তৃণমূল নেতার ছেলে ছবি ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। কেন? সেই ছবিতে নাকি দেখা যাচ্ছে, আগ্নেয়াস্ত্র হাতে ক্যামেরার সামনে পোজ দিয়েছেন তিনি। অভিযুক্ত যুবক রতুয়ার কাহালা অঞ্চলে তৃণমূলের সহ-সভাপতি মহম্মদ মহম্মদ বদরুজ্জোহার ছেলে। ভাইরাল হওয়া ছবিটি যে দলের সহ-সভাপতির ছেলেরই,তা স্বীকার করে নিয়েছেন রতুয়ার কাহালা অঞ্চলে তৃণমূল সভাপতি শেখ এন্তাজুল আলম। দলের সাধারণ সম্পাদক কৃষ্ণেন্দুনারায়ণ চৌধুরী জানিয়েছেন, 'কেউ অন্যায় করলে দল তাঁর পাশে থাকবে না। পুলিস তদন্ত করছে, দোষ প্রমাণিত হলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে'।
  • Link to this news (২৪ ঘন্টা)