• ?গদ্দার কখনও মুখ্যমন্ত্রী হতে পারে না?, পাইলটের উদ্দেশে ঝাঁজালো আক্রমণ গেহলটের
    প্রতিদিন | ২৫ নভেম্বর ২০২২
  • সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বেশ কিছুদিন ধরেই রাজস্থান কংগ্রেসে ভাঙন চোখে পড়েছে। শচীন পাইলট (Sachin Pilot) না অশোক গেহলট (Ashok Gehlot)-রাজ্য কংগ্রেসের রাশ কার হাতে থাকবে, সেই নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই টানাপোড়েন চলছে। এহেন পরিস্থিতিতে একটি সাক্ষাৎকারে সরাসরি পাইলটকে আক্রমণ করলেন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেছেন, পাইলট আসলে বিশ্বাসঘাতক। সেই জন্যই মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে তাঁর কথা ভাবতে পারেন না দলীয় হাইকমান্ড। এহেন বিস্ফোরক অভিযোগের পালটা জবাব দিয়েছেন পাইলটও।

    একটি সাক্ষাৎকারে শচীন সম্পর্কে বিস্ফোরক অভিযোগ আনেন গেহলট। তিনি বলেন, 'এক গদ্দার কখনই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হতে পারে না। হাইকমান্ড কখনই শচীনকে মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে ভাবতে পারেনি। দশজন বিধায়কেরও সমর্থন নেই ওর কাছে। দলের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে পাইলট।' প্রসঙ্গত, বেশ কিছুদিন ধরেই রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী পদ নিয়ে লড়াই চলছে দুই নেতার মধ্যে। কংগ্রেসের (Congress) সভাপতি নির্বাচনের সময়েও দুই নেতার বিরোধিতার জেরে রাজস্থানে সরকার পড়ে যাওয়ার উপক্রম হয়েছিল।

    তবে এহেন অভিযোগ আসার পরে পালটা দিয়েছেন পাইলটও। গেহলটকে কার্যত মিথ্যাবাদী আখ্যা দিয়ে পাইলটের মত, অহেতুক অভিযোগ আনা হচ্ছে তাঁর বিরুদ্ধে। সমস্ত অভিযোগই মিথ্যা। মধ্যপ্রদেশে পৌঁছে ভারত জোড়ো যাত্রায় যোগ দেবেন তিনি। তার আগেই গেহলটের অভিযোগ সম্পর্কে পাইলট বলেছেন, 'বিশ্বাসঘাতক, অযোগ্য প্রভৃতি নানা অভিযোগ আনা হয়েছে আমার বিরুদ্ধে। এগুলোর কোনও প্রয়োজন ছিল না। বিজেপিকে হারানোই এখন আমাদের মূল লক্ষ্য হওয়া উচিত। সামনেই গুজরাটের বিধানসভা নির্বাচন, সেখানে দায়িত্বে রয়েছেন গেহলট। একমাত্র কংগ্রেসই পারে বিজেপিকে টক্কর দিতে পারে। সেখানেই মন দেওয়া উচিত।'

    শচীন পাইলট বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন, এমন সম্ভাবনাও উসকে দিয়েছেন গেহলট। সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, দিল্লিতে গিয়ে অমিত শাহের সঙ্গে আলাদা করে বৈঠক করেছেন পাইলট। সেখানে দশ কোটি টাকাও দেওয়া হয়েছে পাইলটকে। তবে পাইলটের অনুগামীরা গেহলটকে একহাত নিয়েছেন। তাঁদের দাবি, পাইলট আসলে অভিমন্যূ। চক্রবূহ্যের মধ্যে আটকে দেওয়া হয়েছে তাঁকে। তবে এখান থেকে লড়াই করে বেরিয়ে আসবেন তিনি, এমনটাই আশা করছেন পাইলটের অনুগামীরা।
  • Link to this news (প্রতিদিন)