• বারুইপুর সীতাকুণ্ডু বিদ্যায়তন হাই স্কুলে দুঃসাহসিক চুরি
    বর্তমান | ২৫ নভেম্বর ২০২২
  • সংবাদদাতা, বারুইপুর: দুষ্কৃতীরা প্রথমে হাই স্কুল লাগোয়া প্রাথমিক স্কুলের গেটের তালা ভাঙে। এরপর হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষিকার ঘরের জানালা গ্যাস কাটার দিয়ে কেটে ভেতরে ঢোকে তারা। অভিযোগ, প্রধান শিক্ষিকার ঘর, অফিস ঘর, লাইব্রেরি, কম্পিউটার ও শিক্ষকদের বসার ঘরের আলমারি, লকার, গেটের তালা ভেঙে ঘর লণ্ডভণ্ড করা হয়। খোয়া গিয়েছে কিছু গুরুত্বপূর্ণ নথিপত্র ও নগদ ৫-৬ হাজার টাকা। ঘটনাটি ঘটে বুধবার রাতে, বারুইপুরের সীতাকুণ্ডু বিদ্যায়তন হাই স্কুলে। বৃহস্পতিবার সকালে ঘটনা জানাজানি হতে স্কুলে হাজির হন প্রধান শিক্ষিকা সহ অন্য শিক্ষকরা। আসেন স্কুলের পরিচালন সমিতির সদস্যরাও। অভিযোগ, সিসি ক্যামেরার হার্ড ডিস্ক, কম্পিউটার স্ক্যানার নিয়ে চম্পট দিয়েছে দুষ্কৃতীরা। বারুইপুর থানার পুলিস তদন্ত শুরু করেছে। তবে স্কুলে নৈশপ্রহরী থাকা সত্ত্বেও কীভাবে এই ঘটনা ঘটল, তা নিয়ে এলাকার বাসিন্দারা প্রশ্ন তুলেছেন। প্রধান শিক্ষিকা পাপিয়া হালদার বলেন, স্কুলে আগে কখনও এমন ঘটনা ঘটেনি। প্রায় ১৬টি আলমারি ভেঙেছে, লকারও ভাঙা। কম্পিউটার ঘর, লাইব্রেরি, অফিস ঘর, স্টাফ ঘর, আমার ঘরও তছনছ করা হয়েছে। ছড়িয়ে-ছিটিয়ে পড়ে কাগজপত্র। এতে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছি। তিনি আরও বলেন, নৈশপ্রহরী রাতে আওয়াজ পেয়েছিলেন। উঠে টর্চ জ্বালিয়ে কাউকে না দেখতে পেয়ে আবার ঘুমিয়ে পড়েন। এলাকার বাসিন্দারা বলেন, এই চুরি নিয়ে রহস্য আছে। স্কুলের সিসি ক্যামেরার মুখ ঘুরিয়ে দেওয়া ছিল।
  • Link to this news (বর্তমান)