• পুরভোটের আগের রাতে অশান্তি ত্রিপুরায়, কড়া নিরাপত্তায় সকালে শুরু ভোটগ্রহণ
    ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস | ২৫ নভেম্বর ২০২১
  • নির্ধারিত সময়েই আজ শুরু হয়েছে ত্রিপুরার পুরভোট। বিকেল ৪টে পর্যন্ত আগরতলা পুরসভা ছাড়াও রাজ্যের ১৩টি পুর পরিষদ-সহ ৬টি নগর পঞ্চায়েতেও ভোটগ্রহণ হবে। মোট ৬৪৪টি বুথে ভোটগ্রহণ। ৩৭০টি বুথকে ‘অতি স্পর্শকাতর’ এবং ২৭৪টি ‘স্পর্শকাতর’ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।

    অতি স্পর্শকাতর বুথগুলিতে ত্রিপুরা স্টেট রাইফেলসের চার জওয়ান মোতায়েন রয়েছেন। এরই পাশাপাশি রাজধানী আগরতলার ভোটকেন্দ্রগুলিতে মোতায়েন TSR-এর ৫ জন করে জওয়ান। ত্রিপুরার স্পর্শকাতর বুথগুলিতে রাজ্য পুলিশের ৪ জন সশস্ত্র বাহিনীর জওয়ান রয়েছেন।

    পুরভোটের আগের রাত থেকেই নতুন করে উত্তেজনা ছড়িয়েছে ত্রিপুরায়। শাসক বিজেপির বিরুদ্ধে প্রার্থীদের বাড়িতে হামলার অভিযোগ তুলেছে তৃণমূল ও সিপিএম। গতরাতে আগরতলা পুরসভার ৫ ও ১২ নং ওয়ার্ডে প্রার্থীদের বাড়িতে হামলার অভিযোগ তুলেছে তৃণমূল।

    বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধেই হামলার অভিযোগ উঠেছে। এরই পাশাপাশি এক সিপিএম প্রার্থীর বাড়িতেও হামলার অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে। যদিও তৃণমূল ও সিপিএমের তোলা এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি।

    সব মিলিয়ে পুরভোটের আগের রাত থেকেই উত্তপ্ত ত্রিপুরা। বাংলার সীমা ছাড়িয়ে এবার ত্রিপুরায় বিজেপিকে জোর ধাক্কা দেওয়ার মরিয়া চেষ্টায় তৃণমূল। আগরতলা পুরসভার ৫১ ওয়ার্ডেই জোড়াফুলের প্রার্থীরা লড়াই করছেন।

    অবাধ-শান্তিপূর্ণ ভোট হলে আগরতলা পুরসভায় বিজেপি খাতাই খুলতে পারবে না বলে দাবি করেছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে পুর নির্বাচনের আগেই ত্রিপুরার প্রায় ৩৪ শতাংশ আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হয়েছেন বিজেপি প্রার্থীরা।
  • Link to this news (ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস)