• পুরভোটে উত্তপ্ত ত্রিপুরা, মাথা ফাটল তৃণমূল এজেন্টের, ‘আক্রান্ত’ প্রার্থী
    ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস | ২৫ নভেম্বর ২০২১
  • অশান্তি এড়ানো গেল না ত্রিপুরা পুরভোটে। বৃহস্পতিবার ভোট শুরুর কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই আগরতলার বিভিন্ন প্রান্তে গন্ডগোল। বেধড়ক মারধরে এক তৃণমূল এজেন্টের মাথা ফেটেছে। হামলার শিকার খোদ জোড়াফুলের প্রার্থীও। একাধিক ওয়ার্ডে তৃণমূলের কর্মীদের মারধরেরও অভিযোগ উঠেছে। বিজেপির বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ উঠলেও জোড়াফুলের এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে গেরুয়া শিবির। এদিকে, নির্বাচনে অশান্তি নিয়ে সংশ্লিষ্ট আধিকারিক থেকে শুরু করে পুলিশ প্রশাসনের কর্তাদের অভিযোগ জানিয়েও সুরাহা মিলছে না বলে অভিযোগ তৃণমূলের।

    এদিন ভোট শুরুর কয়েক ঘণ্টা পরেই ‘আক্রান্ত’ হন আগরতলার ৫১ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল প্রার্থী তপন বিশ্বাস। ভোট দিয়ে বেরনোর সময় তাঁকে বেধড়ক মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। তৃণমূল প্রার্থীর দুটি চোখেই গুরুতর আঘাত লেগেছে। কোনওক্রমে সেখান থেকে পালিয়ে যান তপন বিশ্বাস।

    তৃণমূলের অভিযোগ, পরিকল্পনামাফিক এই হামলা চালিয়েছে বিজেপি। যদিও তৃণমূলের এই অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে জানিয়েছে বিজেপি। এরই পাশাপাশি একাধিক ওয়ার্ডে দলীয় কর্মীদের মারধর করা হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছে তৃণমূল। তারও আগে এদিন সকালে আগরতলার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল প্রার্থীর এজেন্টকে মেরে মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে।

    ত্রিপুরায় আজ পুরভোট শুরুর পর থেকে ভুরি-ভুরি অভিযোগ জমা পড়তে শুরু করে নির্বাচন কমিশনের কাছে। হামলার পাশাপাশি EVM-এ গড়মিল নিয়েও বিস্তর অভিযোগ জমা পড়েছে। এমনকী একাধিক এলাকায় জমায়েত করে রাখারও অভিযোগ উঠেছে। তৃণমূলের দাবি, নির্বাচনি আধিকারিক, পুলিশকে জানালেও উপযুক্ত পদক্ষেপ করা হচ্ছে না।

    এদিন আগরতলার ৪১, ২ নম্বর ওয়ার্ডের বেশ কয়েকটি বুথে ভোটারদের বাধা দেওয়া হয় বলেও অভিযোগ। বিজেপির বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠলেও তা অস্বীকার করেছে গেরুয়া শিবির। এদিন ত্রিপুরার বিজেপি মুখপাত্র নব্যেন্দু ভট্টাচার্যের পাল্টা অভিযোগ, তৃণমূল নিজেদের রাজ্যে অশান্তির পরে এবার ত্রিপুরাতেও অশান্তির পরিবেশ তৈরি করতে চাইছে। কড়া পুলিশি প্রহরায় ভোট হচ্ছে।
  • Link to this news (ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস)