• পতাকা বিতর্ক: ঢাকায় মামলা দায়েরের আবেদন পাকিস্তানের ২১ জনের বিরুদ্ধে, হল খারিজ
    হিন্দুস্তান টাইমস | ২৫ নভেম্বর ২০২১
  • পতাকা বিতর্কে ঢাকায় পাকিস্তানের ২১ জন খেলোয়াড়ের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন জমা পড়েছিল। বৃহস্পতিবার ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সেই আবেদন করেন বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আল মামুন। যদিও সেই আবেদন খারিজ হয়ে গিয়েছে। বাংলাদেশের সংবাদমাধ্যমের তরফে এমনই দাবি করা হয়েছে।

    বাংলাদেশের সংবাদমাধ্যম প্রথম আলোর প্রতিবেদন অনুযায়ী, মোহাম্মদ দাবি করেন যে নিয়ম অনুযায়ী, বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা হল স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্বের প্রতীক। কোনও বিদেশি যদি বাংলাদেশের মাটিতে নিজের দেশের জাতীয় পতাকা প্রদর্শন করতে চান, তাহলে তাঁকে আগেভাগে সরকারের অনুমতি নিতে হবে। কিন্তু প্রাথমিকভাবে পাকিস্তান সেই কাজটি করেনি বলে দাবি করেন মোহাম্মদ। তাঁর দাবি, সরকারের অনুমতি ছাড়াই মীরপুরের শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে অনুশীলনের সময় নিজেদের জাতীয় পতাকা দেখিয়ে বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত, পতাকা ও প্রতীক আদেশ ১৯৭২ লঙ্ঘন করেছেন। সেই ভিত্তিতে মামলা দায়েরের আবেদন করেন মোহাম্মদ। পাকিস্তান ক্রিকেট দলের ২১ জনের বিরুদ্ধে মামলা করার অনুমতি চান।

    ওই সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, প্রাথমিকভাবে মোহাম্মদের বয়ান রেকর্ড করা হয়। যদিও পরে সেই আবেদন খারিজ করে দেন সিএমএম আদালতের অ্যাডিশনাল চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আবু বকর সিদ্দিক। আদালতের বেঞ্চ সহকারী পারভেজ আহমেদকে উদ্ধৃত করে প্রথম আলো জানিয়েছে, সেই মামলার জন্য সরকারের অনুমোদন নেই। সেজন্য মামলা দায়েরের আবেদন খারিজ করা হয়েছে।

    উল্লেখ্য, বাংলাদেশ সফরের শুরুতে মীরপুরের শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামের অ্যাকাডেমির মাঠে পাকিস্তানের পতাকা লাগিয়ে অনুশীলন করেছিলেন মহম্মদ রিজওয়ান, শাহিন আফ্রিদি, বাবর আজমরা। তা নিয়েই বিতর্ক শুরু হয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ উগরে দেন বাংলাদেশের মানুষ। বাংলাদেশের তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসান তো জানান, পাকিস্তানের খেলোয়াড়দের নিয়ে তাঁর কোনও বক্তব্য নেই। কিন্তু বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবর্ষ উদযাপনের সময় পাকিস্তানের আচরণ মেনে নেওযা যায় না।অনুশীলনের সময় পাকিস্তানের চাঁদ-তারা পতাকা রাখার বিষয়টি কোনওভাবেই সমর্থন করছেন না তিনি। সেইসঙ্গে কড়া ভাষায় তথ্য প্রতিমন্ত্রী বলেন, পতাকা লাগিয়ে অনুশীলন করছে কেন? সিনেমা চলছে? ভণ্ডামি হচ্ছে? 'আমার মতে, পাকিস্তানকে পতাকা-সহ নিজেদের দেশে ফেরত পাঠিয়ে দেওয়া উচিত।' সঙ্গে তিনি জানান, বাংলাদেশের মানুষের চেতনা এবং হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হয়। পাকিস্তানের সঙ্গেই যুদ্ধ করে মুক্তি সংগ্রামের মাধ্যমে পরাজিত করা হয়েছিল। ৩০ লাখ শহিদের ‘রক্ত’ দিয়ে বাংলাদেশ গড়ে উঠেছে।
  • Link to this news (হিন্দুস্তান টাইমস)