• তারস্বরে DJ-পার্টিই প্রাণ কাড়ল ৬৩টি মুরগির?
    এই সময় | ২৬ নভেম্বর ২০২১
  • বালাসোর: মুরগি 'খুন' নিয়ে হইচই ওড়িশায়। একটা-দু'টো নয়, ৬৩টা মুরগি! তারস্বরে ডিজে আর ব্যান্ড পার্টির আওয়াজেই তাঁর খামারের এতগুলো মুরগির মৃত্যু হয়েছে বলে পড়শির বিরুদ্ধে থানায় FIR দায়ের করলেন কান্দাগিরি গ্রামের বাসিন্দা বছর বাইশের রঞ্জিত পরিদা। তাঁর অভিযোগ, বারণ করেও লাভ হয়নি। বরং ইচ্ছে করেই বিয়েবাড়ির DJ-তাণ্ডব চালিয়ে গিয়েছেন তাঁর পড়শি রামচন্দ্র পরিদা। আর তাতেই রবিবার রাত ১২টা নাগাদ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছে তাঁর এতগুলো মুরগি। এই অভিযোগ হাস্যকর বলে দাবি করেছেন রঞ্জিতের পড়শি রামচন্দ্র। তাঁর দাবি, কই রাস্তায় গাড়িতে করে মুরগি নিয়ে যাওয়ার সময় তো গাড়ির হর্নে ওদের হার্ট অ্যাটাক হয় না! সূত্রের খবর, তদন্তে নেমেই পশু চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলেছে নীলগিরি থানার পুলিশ। এমনটা কি সম্ভব? বীভৎস আওয়াজে পশু-পাখির হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সম্ভাবনা উড়িয়ে দিচ্ছেন না অনেকেই। তাঁদের কথায়, 'চড়া ডেসিবেলের আওয়াজ ডিজে, বাজি ইত্যাদি পশু-পাখিরা সহ্য করতে পারে না। বেশ কিছু ক্ষণ ধরে সেই তাণ্ডব চললে মারা যেতেই পারে ওরা।

    তরুণ খামার মালিক রঞ্জিতের দাবি, তাঁর খামারের সব মুরগিই নীরোগ ছিল। এক রাতেই তাঁর ২৫ হাজার টাকার ক্ষতি হয়ে গিয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি। ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ডিগ্রি রয়েছে তাঁর। কিন্তু চাকরি জোটাতে না-পেরে ২০১৯-এ স্থানীয় একটি সমবায় ব্যাঙ্ক থেকে ২ লক্ষ টাকা ঋণ নিয়ে খামার করেছিলেন রঞ্জিত। প্রথমে অবশ্য তিনি ক্ষতিপূরণ চেয়েই প্রতিবেশীর কাছে গিয়েছিলেন। রামচন্দ্র রাজি না-হয়ে উল্টে ঠাট্টা করাতেই তিনি থানার দ্বারস্থ হন বলে দাবি রঞ্জিতের।

    ঠিক কী হয়েছিল রবিবার রাতে? রঞ্জিতের দাবি, 'বারবার বলা সত্ত্বেও ওরা DJ-র সাউন্ড কমায়নি। উল্টে বরের কয়েক জন বন্ধু বলল সাউন্ডটা আরও বাড়িয়ে দিতে। তারপর দেখলাম রাস্তায় ব্যান্ডপার্টি বার করেছে। আর ঠিক আমার খামারের সামনে অন্তত মিনিট ১৫ দাঁড়িয়ে তারস্বরে গানবাজনা। চোখের সামনেই দেখলাম, ওই ভয়ঙ্কর শব্দে আমার চোখের সামনেই কোনওটা ছটফট, আর কোনওটা হিস হিস শব্দ করতে করতে মারা গেল।'

    থানায় অভিযোগ দায়েরের পরে দু'পক্ষকেই মুখোমুখি বসিয়েছিল পুলিশ। প্রাথমিক ভাবে মীমাংসা না হলেও, পুলিশের একাংশ মনে করছেন, ক্ষতিপূরণেই ব্যাপারটা মিটে যাবে। রঞ্জিতের অবশ্য সাফ কথা, 'আমি এর শেষ দেখে ছা়ডব।'
  • Link to this news (এই সময়)