• উত্তর-পূর্ব ভারতে লগ্নির পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে, দাবি অমিত শাহের
    বর্তমান | ২৬ নভেম্বর ২০২১
  • নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: নরেন্দ্র মোদির আমলে উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলিতে বিনিয়োগের পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা, সন্ত্রাসবাদের নিয়ন্ত্রণ এবং পরিকাঠামো খাতে খরচ বৃদ্ধি সেই পরিবেশ তৈরি করেছে। বৃহস্পতিবার এই দাবি করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এদিন কলকাতায় একটি অনুষ্ঠানে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে যোগ দেন তিনি। তাঁর বক্তব্যের বিষয় ছিল উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্য। তবে সেখানকার গুণগান করতে গিয়ে পশ্চিমবঙ্গের উন্নয়নকে অস্বীকার করতে পারেননি শাহ।

    এদিন বক্তব্যের গোড়াতেই অমিত শাহ বলেন, পূর্ব ভারতের সর্বত্রই উন্নতি হয়েছে। সেই তালিকায় আছে পশ্চিমবঙ্গ, বিহার বা ওড়িশা। কিন্তু যতক্ষণ না উত্তর-পূর্ব ভারতের উন্নয়ন হচ্ছে, ততক্ষণ পূর্ব ভারতের উন্নয়ন সম্পূর্ণ হয় না। অমিতবাবুর দাবি, উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলিতে কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকার একযোগে পরিকাঠামোগত উন্নয়ন করেছে। নরেন্দ্র মোদি ক্ষমতার আসার পর কেন্দ্র এখানে প্রায় ২ লক্ষ ৬৫ হাজার কোটি টাকা পরিকাঠামোয় খরচ করেছে। পাশাপাশি সন্ত্রাসবাদ এখানে অনেকটাই নিয়ন্ত্রত। অমিত শাহের দাবি, এখানে সন্ত্রাসবাদের কারণে ২০০৭ সাল থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে বছরে গড়ে ৩৮৫ জন মারা যেতেন। ২০১৯ সাল থেকে সেই সংখ্যা বছরে দু’য়ে নেমে এসেছে। ৩ হাজার ৯২২ জন সন্ত্রাসবাদী এখানে আত্মসমর্পণ করেছেন। চারহাজার অস্ত্র সমর্পিত হয়েছে, দাবি শাহের। রাজ্য ও কেন্দ্র মিলে এখানে সন্ত্রাসবাদীদের পুনর্বাসনের জন্য ১২ হাজার কোটি টাকা খরচ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলিতে পাঁচবছর সরকার থিতু হয়েছে। সেখানে রাজনৈতিক স্থিতাবস্থা বজায় রয়েছে। অর্থাৎ শিল্প গড়ার ক্ষেত্রে যা যা করণীয়, সবকিছুই করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। 
  • Link to this news (বর্তমান)