• অভিজিৎ খুনে নোটিস ফেরারদের বাড়িতে
    আনন্দবাজার | ২৬ নভেম্বর ২০২১
  • সাড়ে ছ’মাসেরও বেশি সময় ধরে তাঁরা পলাতক। রাজ্যের ভোট-পরবর্তী হিংসায় বেলেঘাটার কাঁকুড়গাছির বিজেপি-কর্মী অভিজিৎ সরকারকে খুনের মামলায় ফেরার সেই অভিযুক্তদের বাড়িতে 'প্রোক্লেমড' নোটিস সেঁটে দিল সিবিআই। নোটিসে আত্মসমর্পণের জন্য অভিযুক্তদের ২৩ দিন সময় দেওয়া হয়েছে।এক সিবিআই-কর্তা বৃহস্পতিবার বলেন, ‘‘নোটিসে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, ওই সব পলাতক অভিযুক্তকে আদালতে আত্মসমর্পণ করতে হবে ১৭ ডিসেম্বরের মধ্যে। ওই সময়ের মধ্যে আত্মসমর্পণ না-করলে তাঁদের স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হবে।" এ দিন দুপুরে ঢোল পিটিয়ে কাঁকুড়গাছির শীতলাতলা লেন, মানিকতলা মেন রোড ও গিরিশ বিদ্যারত্ন লেন এলাকায় পলাতক ১২ অভিযুক্তের বাড়িতে নোটিস সেঁটে দেওয়া হয় বলে জানান তদন্তকারীরা। একই ভাবে বুধবার বীরভূমেও ঢেঁড়া পিটিয়ে পলাতক অভিযুক্তদের বাড়িতে নোটিস সেঁটে দিয়ে এসেছে ওই কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা।সিবিআইয়ের বক্তব্য, গত ২ মে, বিধানসভা নির্বাচনের ফল ঘোষণার দিন দুপুরে রাজ্যের শাসক দলের কিছু কর্মী-সমর্থক অভিজিৎকে বাড়ি থেকে বার করে আনে। ইট দিয়ে মাথা থেঁতলে, গলায় কেব্‌ল টিভি-র তার পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে তাঁকে খুন করা হয়। সেই ঘটনায় জড়িত অভিযোগে প্রথমে আট জনকে গ্রেফতার করেছিল কলকাতা পুলিশ। পরে কলকাতা হাই কোর্টের নির্দেশে ওই মামলার তদন্তভার নেয় সিবিআই। মাসখানেক আগে ওই ঘটনার তদন্তের পরে শিয়ালদহ আদালতে ২০ জনের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত চার্জশিট পেশ করে তারা। হত্যাকাণ্ডের পর থেকেই ১২ জন অভিযুক্ত পলাতক বলে ওই চার্জশিটে অভিযোগ করে সিবিআই।

    সিবিআই সূত্রে খবর, ওই ঘটনায় কিছু প্রভাবশালী নেতা এবং কলকাতা পুলিশের তদন্তকারী অফিসারদের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ রয়েছে। কিছু তথ্যপ্রমাণ সংগ্রহ বাকি। সেগুলি জোগাড়ের পরেই ওই সব প্রভাবশালী নেতাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। মামলার তদন্তকারী অফিসার-সহ কলকাতা পুলিশের একাধিক আধিকারিককে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তার ভিত্তিতে খুনের মামলার অনেক গুরুতর তথ্যপ্রমাণ তাঁদের হাতে এসেছে বলে তদন্তকারীদের দাবি। এ দিন অভিজিতের দাদা বিশ্বজিৎকে খুনের হুমকির অভিযোগ সংক্রান্ত মামলার শুনানি হয় শিয়ালদহ আদালতের অতিরিক্ত মুখ্য বিচার বিভাগীয় বিচারকের এজলাসে। বিশ্বজিতের অভিযোগ, বেলেঘাটার বিধায়ক পরেশ পাল ও নারকেলডাঙা থানার প্রাক্তন ওসি শুভজিৎ সেন তাঁকে খুন করা হবে বলে শাসিয়েছেন। পুলিশের তরফে আদালতে জানানো হয়, ওই অভিযোগ মিথ্যা। আদালত সূত্রের খবর, বিচারক এ দিন ১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে হলফনামা পেশের নির্দেশ দিয়েছেন অভিযোগকারীকে।

  • Link to this news (আনন্দবাজার)