• ‌করোনাজয়ীদের মঞ্চ থেকে পাশে থাকার বার্তা সংক্রমিতদের
    আজকাল, 06 July 2020
  • মলয় সিন্‌হা

    করোনা সংক্রমণ হয়েছে শুনলেই প্রতিবেশী, আত্মীয়, বন্ধু সবাই ব্রাত্য করে দেয় গোটা পরিবারকে। এরপর থেকেই মানসিক চাপে পড়ে যান আক্রান্তের পরিবারের সদস্যরা। কী করবেন?‌ কোথায় যাবেন?‌ এই পরিস্থিতিতে সংক্রমিতদের পরিবারের পাশে থাকার বার্তা দিলেন করোনা জয়ী যোদ্ধারা। শুধু বার্তা নয়, রীতিমতো মঞ্চ গড়ে ২৪ ঘণ্টার হেল্পলাইন খুলতে চলেছেন তাঁরা। মঞ্চের নাম দিয়েছেন ‘‌কোভিড কেয়ার নেটওয়ার্ক’‌। এখানে ফোন করলে সরকারি গাইডলাইন মেনে ডাক্তারি পরামর্শ, আক্রান্ত ও তাদের পরিবারের সদস্যদের পরম–বন্ধুর মতো পাশে থাকবেন মঞ্চের সদস্যরা। ইতিমধ্যেই ১ জুলাই থেকে মঞ্চের সদস্যরা তাঁদের প্রাথমিক কাজ শুরু করে দিয়েছেন। মানুষের পাশে থাকা এবং করোনাকে হারানোর মনোবল বাড়াতে এই মঞ্চের সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন বিশিষ্ট চিকিৎসক ডাঃ অভিজিৎ চৌধুরি, ডাঃ যোগীরাজ রায়, ডাঃ দীপ্তেন্দ্র সরকার, ডাঃ অরিজিৎ ঘোষ, ডাঃ পার্থসারথি মুখার্জি, বিশিষ্ট পর্বতারোহী সত্যরূপ সিদ্ধান্ত, অভিনেতা দেবশঙ্কর হালদার, পর্বতারোহী ও মডেল মাধবীলতা মিত্র–‌সহ বিশিষ্টরা।

    কোভিড কেয়ার নেটওয়ার্ক–‌এর কাজ নিয়ে মঞ্চের সম্পাদক সত্যরূপ সিদ্ধান্ত জানালেন, ‘‌করোনাকে হারিয়েছেন এমন সব মানুষকে নিয়ে এই মঞ্চ গড়া হয়েছে। করোনা সংক্রমিত হলে কী করণীয় এবং চিকিৎসকদের পরামর্শ এবং সরকারি গাইডলাইন মেনে তাদের পাশে দাঁড়ানো।’‌ এমনকী কোভিড সংক্রমিতদের পরিবারগুলি মানসিকভাবে ভেঙে না পড়ে এরজন্য পাশে থাকবে মঞ্চের সদস্যরাও, জানালেন সত্যরূপ। তিনি আরও জানালেন, এই মঞ্চের সভাপতি ডাঃ অরিজিৎ ঘোষ। সহ–সম্পাদিকা মাধবীলতা মিত্র জানান, ‘‌আমার মা–ও করোনাকে হারিয়েছেন। নিজের চোখে দেখেছি তাঁর লড়াই। আক্রান্তদের পাশে দাঁড়িয়ে বলতে চাই— ভয় নয়, আমরা পাশে আছি।’‌ মঞ্চের সহ–সভাপতি আইনজীবী অরিন্দম দাস জানালেন, ‘‌সংক্রমণ আরও বাড়ছে। আক্রান্তদের সঠিকভাবে সচেতন করা এবং ২৪ ঘণ্টা সঠিকভাবে চিকিৎসকের পরামর্শ দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে।’‌ বিশিষ্ট চিকিৎসক ডাঃ দীপ্তেন্দ্র সরকার জানালেন, ‘‌আক্রান্তরা করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করছেন। আমরা ওদের পাশে আছি এই বার্তার পাশাপাশি ওদের সাহস দেওয়া। এরজন্য ২৪ ঘণ্টার হেল্পলাইন চালু হতে চলেছে। আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই এই পরিষেবা চালু হবে। করোনা সংক্রমণ নিয়ে আমাদের কাছে ফোন করে জানতে চাইলে আমরা সরকারি গাইডলাইন মেনে পরামর্শ দেব। এরজন্য জুনিয়র ডাক্তারদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে যথেষ্ট সহযোগিতা পেয়েছি।’‌ দেখা যায় করোনায় সুস্থ হয়ে এলেও এলাকার মানুষ তাদের একঘরে করে রাখে। এই ধরনের সমস্যা হলে কোভিড কেয়ার নেটওয়ার্ক–এর সদস্যরা দ্রুত পৌঁছে গিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন বলে জানালেন ডাঃ দীপ্তেন্দ্র সরকার। মঞ্চ কী কী কাজ করবে এই নিয়ে সত্যরূপ সিদ্ধান্ত জানালেন, ‘‌খাবার ও ওষুধ পৌঁছে দেওয়া হবে। ২৪ ঘণ্টা ডাক্তার ও স্বাস্থ্যকর্মীরা করোনা নিয়ে প্রশ্নের উত্তর দেবেন। হোম আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা করলে সরকারি গাইডলাইন মেনে পরামর্শ দেওয়া হবে।’‌ কোভিড কেয়ার নেটওয়ার্ক–এর হেল্পলাইন পরিষেবা প্রথমে কলকাতায় চালু হবে। আগামী দিনে এই পরিষেবা গোটা রাজ্যে ছড়িয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা আছে বলে জানালেন ডাঃ দীপ্তেন্দ্র সরকার। ‌‌
  • Link to News (আজকাল)