• পেঁয়াজ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা, দাম নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা কেন্দ্রের 
    বর্তমান, 16 September 2020
  • নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি: পেঁয়াজ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে কেন্দ্র। দেশজুড়ে পেঁয়াজের দাম আকাশ স্পর্শ করেছে। এই অবস্থায় পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দাম নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করছে কেন্দ্র। কারণ কেন্দ্রের লক্ষ্য, রপ্তানি বন্ধ করে দেশীয় মার্কেটে পেঁয়াজের সাপ্লাই বাড়ানো। বাণিজ্য মন্ত্রকের এই সিদ্ধান্ত নিয়ে অবশ্য মিশ্র প্রতিক্রিয়া হয়েছে। একদিকে রিটেল বাণিজ্য মহল এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে। কিন্তু মহারাষ্ট্র, মধ্যপ্রদেশ, কর্ণাটক, গুজরাতের কৃষকদের মধ্যে চরম ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে। মঙ্গলবার প্রাক্তন কৃষিমন্ত্রী শারদ পাওয়ার বলেছেন, এই সিদ্ধান্তে লাভ হবে পাকিস্তানের। বাংলাদেশ, সৌদি আরব, শ্রীলঙ্কা ভারতের পেঁয়াজের আমদানি করে। তাদের সঙ্গে ভারতের রপ্তানিকারীদের চুক্তিও হয়ে রয়েছে। এমতাবস্থায় সবেমাত্র চাষিরা তাঁদের উৎপাদনের বেশি দাম পেতে শুরু করেছিলেন। তখনই এরকম একটি সিদ্ধান্ত বিপুল ক্ষতি করবে বাণিজ্যের। পাওয়ারের বক্তব্য, খুচরো মার্কেটে পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধির সঙ্গে রপ্তানির সম্পর্ক নেই। অসাধু এজেন্ট ও মজুতদারদের বিরুদ্ধে কেন অভিযান চালানো হচ্ছে না? দাম তো তারাই বাড়িয়ে দিচ্ছে কৃত্রিম অভাব তৈরি করে! সোমবার একটি বিজ্ঞাপ্তি জারি ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এই রপ্তানি নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে। গত এপ্রিল মাস থেকে লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়েছে পেঁয়াজের দাম। বহু রাজ্যে দ্বিগুণ, তিনগুণ দাম বেড়ে চলেছে। শুধু পেঁয়াজ নয়, সামগ্রিক বাজারের মূল্যবৃদ্ধি চরমে উঠেছে। উৎসবের মরশুমের প্রাক্কালে এই মূল্যবৃদ্ধি গৃহস্থকে সঙ্কটে ফেলেছে।  
  • Link to News (বর্তমান)