• কোন জেলায় কবে তাপপ্রবাহ? পূর্বাভাসে জানাল হাওয়া অফিস
    Aajtak | ০৪ এপ্রিল ২০২৪
  • এবছর আচমকাই কার্যত ঝলসে দেওয়া গরম পড়ে গিয়েছে। সকাল থেকেই চাঁদিফাঁটা গরম ও অস্বস্তিকর রোদে কাবু কলকাতা সব রাজ্যের প্রায় সব জেলাই। বৃষ্টি না হলে এই পরিস্থিতি পাল্টানোর কোনও সম্ভাবনা নেই। কিন্তু ঝড়বৃষ্টির কোনও সম্ভাবনা আপাতত নেই বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। বরং তাপমাত্রা আরও বৃদ্ধি পেয়ে তাপপ্রবাহের পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে কয়েকটি জেলায়। তবে উত্তরের একাধিক জেলায় বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। 

    গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের বেশ কিছু জেলার তাপমাত্রার পারদ ৪০ থেকে ৪২ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছুঁতে পারে। দিনের তাপমাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে চার থেকে পাঁচ ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি থাকবে বেশ কয়েকটি জেলায়। বুধবার পুরুলিয়া, পশ্চিম বর্ধমান, পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার কিছু এলাকায় তাপপ্রবাহের সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার এই তিন জেলার পাশাপাশি, তাপপ্রবাহের পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে বাঁকুড়া, ঝাড়গ্রাম এবং পূর্ব মেদিনীপুর জেলায়। শুক্রবার পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, পূর্ব বর্ধমান, পশ্চিম বর্ধমান, পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, উত্তর ২৪ পরগনা এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলায় তাপপ্রবাহের সতর্কবার্তা দেওয়া হয়েছে। বেশ কিছু এলাকায় ‘লু’ বইবার সম্ভাবনাও রয়েছে। 

    পাশাপাশি, চলতি সপ্তাহেই ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ঘর ছুঁতে পারে কলকাতার তাপমাত্রা। জলীয় বাষ্প বেশি থাকায় বাড়বে অস্বস্তিও। বুধবার সকালে কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৮.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস যা স্বাভাবিকের চেয়ে দুই ডিগ্রি বেশি। বুধবার কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশপাশে থাকতে পারে। 

    তাপপ্রবাহের হাত থেকে রক্ষা পেতে আবহাওয়া দফতরের তরফে কিছু পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। রাস্তায় বেরিয়ে বেশি ক্ষণ এক টানা রোদে থাকা যাবে না। হালকা রঙের এবং হালকা সুতির বস্ত্র পরিধান করা বাঞ্ছনীয়। ছাতা ব্যবহার করা অথবা কোনও বস্ত্র দিয়ে মাথা ঢেকে রাখা প্রয়োজন। পর্যাপ্ত জল পান করতে হবে। তার পাশাপাশি ওআরএস এবং লেবুর জল বেশি করে খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

    বুধবার এবং বৃহস্পতিবার জলপাইগুড়ি জেলার কয়েকটি এলাকায় বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা বৃষ্টি হতে পারে। শুক্রবার থেকে রবিবার পর্যন্ত বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে জলপাইগুড়ি জেলার কয়েকটি এলাকায়। জলপাইগুড়ির পাশাপাশি উত্তরবঙ্গের দার্জিলিং, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার এবং উত্তর দিনাজপুর জেলার কয়েকটি এলাকায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে।

     
  • Link to this news (Aajtak)