• ভারতীয় সেনাদের ‘অপমান’ রিচার! নায়িকার ‘গলওয়ান টুইট’ নিয়ে ফুঁসে উঠলেন অক্ষয় কুমার
    হিন্দুস্তান টাইমস | ২৪ নভেম্বর ২০২২
  • ভারতীয় জওয়ানদের অপমানের জেরে সোশ্যাল মিডিয়ার রোষের মুখে রিচা চড্ডা। ক্ষমা চেয়েও বিতর্ক এড়াতে ব্যর্থ এই বলিউড অভিনেত্রী। এবার নায়িকার মন্তব্যের সমালোচনায় সরব হলেন খোদ অক্ষয় কুমার। ভারতীয় সেনাপ্রধানের পোস্ট শেয়ার করে তিন শব্দে নিজের মতামত জাহির করেছিলেন রিচা, যা মোটেই ভালোভাবে মেনে নেননি নেটিজেনরা। আগুনের গতিতে ছড়িয়ে পড়ে সেই টুইট। গেরুয়া শিবিরের হাতে তীব্র ভর্ৎসনার শিকার হন ‘ফুকরে’ অভিনেত্রী।

    উপরমহল থেকে অর্ডার মিললেই পাক-অধিকৃত কাশ্মীর(PoK) ছিনিয়ে নেবে ভারতীয় সেনা, নর্দান আর্মি কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল উপেন্দ্র দ্বিবেদী টুইটারে এমনটাই ঘোষণা করেছিলেন টুইটারে। বুধবার সেই টুইট শেয়ার করে খানিক মজার ছলে রিচা লেখেন- ‘গলওয়ান ‘হাই’ বলছে।’ এই নিয়েই যাবতীয় বিতর্কের সূত্রপাত। রিচার চড্ডার টুইটের স্ক্রিনশট শেয়ার করে এদিন অক্ষয় কুমার লেখেন- ‘এটা দেখে ব্যাথা পেলাম। কোনওকিছুই আমাদের যেন দেশের সেনাবাহিনীর প্রতি অকৃতজ্ঞ না করে তোলে। ওঁরা আছে বলেই আমরা আছি'।

    পাক অধিকৃত কাশ্মীরের ফের দখল নেওয়া হবে বলে দিন কয়েক আগেই বিবৃতি দিয়েছিলেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী রাজনাথ সিং। বলেছিলেন, ‘পাকিস্তান PoK-তে যা করেছে তার মূল্য চোকাতে হবে। কাশ্মীরের উন্নয়ন শুরু হয়েছে। ততক্ষণ পর্যন্ত থামা হবে না, যতক্ষণ না গিলগিট-বাল্টিস্তানে পৌঁছনো হচ্ছে।’ সেই প্রসঙ্গ টেনেই উত্তরের সেনাপ্রধান লেফটেন্যান্ট উপেন্দ্র দ্বিবেদী টুইটারে লেখেন, ‘যদি ভারতীয় আর্মির কথা ধরা হয় তাহলে তারা তৈরি সরকারের থেকে আসা যে কোনও নির্দেশ পালন করতে। যখনই এরকম কোনও নির্দেশ আসবে, আমরা তৈরি থাকব। ভারতীয় সেনা দুই দেশের স্বার্থেই সীমান্তে শান্তি রাখার চেষ্টা করে সবসময় ও সব শর্ত মেনে চলে। তবে তা ভাঙলে মুখের মতো জবাব দিতেও ভয় পায় না।’

    এই টুইট নিজের ওয়ালে শেয়ার করে রিচা তিনটি শব্দ লিখেছিলেন- ‘গলওয়ান হাই বলছে’। নিন্দকরা অভিযোগ তোলেন ভারতীয় সেনার আত্মত্যাগতে ছোট করেছেন রিচা। ২০২০ সালে ভারত-চিনের মধ্যে গলওয়ান সংঘর্ষের তিক্ত স্মৃতি আজও ভোলেনি দেশবাসী, সেখান থেকে কীভাবে এই মন্তব্য করে বসলেন রিচা? উঠছে প্রশ্ন।

    পরিস্থিতি বেগতিক দেখে টুইটারে বিবৃতি দিয়ে ক্ষমা চান রিচা চড্ডা। এদিন নায়িকা স্পষ্ট জানান, ‘কাউকে অপমান করা আমার উদ্দেশ্য ছিল না, তবে তিন শব্দ নিয়ে এত বিতর্ক হচ্ছে তা যদি কারও মনে আঘাত করে থাকে, আমি ক্ষমা চাইছি।' পাশাপাশি তিনি আরও বলেন তিনি নিজে সেনা পরিবারের মেয়ে, তাই কোনওদিন ভারতীয় সেনাকে অপমানের কথা তিনি দুঃস্বপ্নেও ভাবতে পারেন না।
  • Link to this news (হিন্দুস্তান টাইমস)