• সিঁথিতে বন্ধ ঘর থেকে উদ্ধার বৃদ্ধার পচাগলা দেহ
    বর্তমান | ২৮ অক্টোবর ২০২১
  • নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সিঁথিতে বন্ধ ঘর থেকে উদ্ধার হল এক বৃদ্ধার পচাগলা দেহ। পুলিস জানিয়েছে, মৃতার নাম কৃষ্ণা মালিক (৭০)। সোমবার রাতে বাড়ির দরজা ভেঙে কৃষ্ণাদেবীকে ওই অবস্থায় উদ্ধার করে  সিঁথি থানার  পুলিস। তদন্তকারীদের প্রাথমিক অনুমান, অন্তত তিন-চারদিন আগে তাঁর মৃত্যু হয়েছে। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, সিঁথির পেয়ারাবাগানের বাসিন্দা কৃষ্ণাদেবী বাড়িতে একাই থাকতেন। পরিবারের বাকি সদস্যরা অন্য জায়গায় থাকেন। প্রতিবেশীরা পুলিসকে জানিয়েছেন, তাঁরা ওই বৃদ্ধাকে রোজই বেরতে দেখতেন। কিন্তু দিন চারেক হল, তাঁকে বাইরে দেখা যায়নি।  সকাল থেকেই এলাকায় দুর্গন্ধ বেরচ্ছিল। স্থানীয়রা ভেবেছিলেন, ময়লা ফেলার ভ্যাট থেকে এই গন্ধ ছড়াচ্ছে। কিন্তু রাত বাড়তেই দুর্গন্ধ আরও ছড়াতে শুরু করে। তাঁরা খেয়াল করেন, কৃষ্ণাদেবীর বাড়ির সামনে দিয়ে অনেকেই নাকে রুমাল চাপা দিয়ে আসছে। তা থেকেই বাসিন্দাদের সন্দেহ হয়। তাঁরা পুলিসে খবর দেন। রাত ৮টা নাগাদ অফিসাররা ওই বাড়ির সামনে পৌঁছন। দেখা যায়, বাড়ির দরজা ভিতর থেকে বন্ধ। ডাকাডাকির পরও কোনও সাড়া না মেলায় বাসিন্দাদের উপস্থিতিতে দরজা ভাঙা হয়। ঘরের ভিতরে ঢুকে বেড রুমে পৌঁছে পুলিস পচাগলা দেহটি পড়ে থাকতে দেখে। বিছানায় পড়েছিল তাঁর দেহ। পুলিসের প্রাথমিক অনুমান, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে কৃষ্ণাদেবীর। তিনি যে খুন হননি, এই বিষয়ে নিশ্চিত পুলিস। খুন হলে দরজা বাইরে থেকে বন্ধ থাকত এবং জিনিসপত্র খোয়া যেত। কিন্তু এক্ষেত্রে কোনওটি হয়নি। ময়নাতদন্তের পরই মৃত্যুর কারণ স্পষ্ট হবে বলে পুলিস মনে করছে। 
  • Link to this news (বর্তমান)