• West Bengal Loksabha Election 2024: বিজেপির আবেদন খারিজ! মালা রায়ের প্রার্থীপদে সিলমোহন কমিশনের...
    ২৪ ঘন্টা | ১৬ মে ২০২৪
  • জি ২৪ ঘণ্টা ডিজিটাল ব্য়ুরো: বিজেপির আবেদন খারিজ! 'মালা রায়ের মনোনয়ন গ্রহণ করে ওয়েবসাইটে আপলোড করল কমিশন', এক্স হ্যান্ডেল পোস্টে জানালেন তৃণমূল নেতা কুণাল ঘোষ।

    শেষ দফায় ভোট কলকাতায়। কবে? ১ জুন। গতবার জিতেছিলেন। কলকাতা দক্ষিণে এবারও তৃণমূল প্রার্থী মালা রায়ই। তাঁর মনোনয়ন বাতিলের দাবি তুলেছিল বিজেপি। গেরুয়াশিবিরের অভিযোগ, কলকাতা পুরসভার চেয়ারপার্সন হওয়া সত্ত্বেও লোকসভা ভোটে প্রার্থী হয়েছেন মালা। যা ‘অফিস অফ প্রফিট’-এর আওতার পড়ে।এদিকে ভোটের মুখে বিড়ম্বনায় পড়েছিলেন বসিরহাটের তৃণমূল প্রার্থী হাজি নুরুল ইসলাম। তাঁর মনোনয়নও বাতিলের দাবি করেছিলেন ওই কেন্দ্রেরই নির্দল প্রার্থী মিরাজ মোল্লা। অভিযোগ, 'মনোনয়নে সময়ে নো ডিউস সার্টিফিকেটে দেননি তৃণমূল প্রার্থী'। তবে হাজি নুরুলের মনোনয়ন যে বাতিল হচ্ছে, কমিশন সূত্রে সে খবর অবশ্য মিলেছিল আগেই। বসিরহাটের তৃণমূল প্রার্থী মনোনয়নপত্র আপলোড করা হয়েছে কমিশনের ওয়েবসাইটে। এর আগে, স্কুটিনি পর্বেই মনোনয়ন বাতিল হয়ে গিয়েছিল বীরভূম কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী, রাজ্যের প্রাক্তন পুলিসকর্তা দেবাশিষ ধরের। একুশে বিধানসভার ভোটের সময়ে গুলি চলেছিল কোচবিহারের শীতলখুচিতে। তখন সেখানকার পুলিস সুপার ছিলেন দেবাশিস। লোকসভা ভোটে মুখে হঠাৎ-চাকরি থেকে ইস্তফা দেন তিনি।মনোনয়ন কেন বাতিল? জানা গিয়েছে, চাকরি থেকে ইস্তফা দিলেও দেবাশিসকে এখনও 'নো ডিউস' দেয়নি রাজ্য় সরকার। কমিশন জানিয়েছে, বেশ কিছু ক্ষেত্রে 'ডিউস ক্লিয়ার' ছিল না। সেকারণেই জনপ্রতিনিধিত্ব আইনের ৩৬ নম্বর ধারায় বাতিল মনোনয়ন। এরপর যখন সুপ্রিম কোর্টে দ্বারস্থ হন প্রাক্তন এই IPS অফিসার, তখন মামলাটি ফিরিয়ে দেয় শীর্ষ আদালত।  সুপ্রিম কোর্টের পর্যবেক্ষণ, 'আপনি সময় মতো 'নো ডিউস' সার্টিফিকেটের জন্য আবেদন জানাননি ! মনোনয়নপত্র বাতিলের মুহূর্তে আবেদন জানিয়েছেন। আপনি তো সাধারণ মানুষ নন, আইপিএস। নিয়ম কানুন জানার কথা ছিল'। নির্বাচন কমিশনের কাছে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হল মামলাকারীকে।   
  • Link to this news (২৪ ঘন্টা)