• নিউ নর্মালে ফিরছে ট্রেনে তৈরি খাবার
    দৈনিক স্টেটসম্যান | ২৩ নভেম্বর ২০২১
  • আবারও দূরপাল্লার ট্রেনে দেখা মিলতে চলেছে প্যান্ট্রি কারের। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, রেলওয়ে বোর্ড এ বিষয়ে নির্দেশ জারি করে দিয়েছেন। বোর্ড জানিয়েছে, আইআরসিটিসি ফের ট্রেনে প্যান্ট্রি চালু করার অর্থাৎ ট্রেনেই রান্না করার বিষয়ে পদক্ষেপ করতে চলেছে। সেই সঙ্গেই চালু থাকবে বর্তমানে ‘রেডি টু ইট' খাবারের প্যাকেটের বন্দোবস্তও।

    প্রায় দেড় বছরেরও বেশি সময় ধরে দেশের জনজীবনে প্রভাব ফেলেছে অতিমারী। সেই পরিস্থিতিতে দীর্ঘ সময় বন্ধ ছিল ট্রেন চলাচল। পরে তা চালু হলেও ট্রেনে কেটারিং পরিষেবা বন্ধই রয়েছে। এই মুহূর্তে ট্রেনে চা, কফি, স্ন্যাক্স পাওয়া যায়। এই দীর্ঘ সময়ে স্বাভাবিক ভাবেই তীব্র আর্থিক সংকটে পড়তে হয়েছে এর সঙ্গে যুক্ত অসংখ্য মানুষকে।

    জানা যাচ্ছে, প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ ভাবে রেলের প্যান্ট্রি পরিষেবায় অন্তত ৫ লক্ষ মানুষ নির্ভরশীল। ফলে ফের এই পরিষেবা শুরু হলে তাঁরা যে অত্যন্ত স্বস্তি পাবেন, তা বলাই বাহুল্য। আর এই পরিস্থিতিতে রেলওয়ে বোর্ডের এগজিকিউটিভ ডিরেক্টর বন্দনা ভাটনগর আইআরসিটিসি সদর দপ্তরকে নির্দেশ দিয়েছেন, ফের ট্রেনে এই পরিষেবা শুরু করার জন্য।

    করোনা সময়ে সংক্রমণ থেকে বাঁচতে সাবধানতা অবলম্বন করতে নানা পদক্ষেপ করা হয়েছিল। এসি কামরায় যাত্রীদের রেলের তরফে আলাদা বিছানা, বালিশ দেওয়া হচ্ছিল না। যদিও সেজন্য যাত্রীদের থেকে অর্থ কেন কেটে নেওয়া হচ্ছে তা নিয়ে বিতর্ক রয়েছে। একই ভাবে বিতর্ক রয়েছে ট্রেনে খাবার সরবরাহ করা নিয়েও।

    শতাব্দী এক্সপ্রেসের মতো বহু ট্রেনেই এখনও মিল চার্জ নেওয়া হচ্ছে। অথচ যাত্রীদের আলাদা করেই খাবার বাবদ খরচ করতে হচ্ছে। বিতর্ক রয়েছে এটা নিয়েও। অবশেষে বিতর্কের অবসান হতে চলেছে। প্যান্ট্রির পাশাপাশি এবার থেকে রেলের যাত্রীদের বিছানা, বালিশও দেওয়া হবে আগের মতোই।
  • Link to this news (দৈনিক স্টেটসম্যান)