• সব বুথ স্পর্শকাতর: কমিশন, আজ ত্রিপুরায় পুরভোট
    দৈনিক স্টেটসম্যান | ২৫ নভেম্বর ২০২১
  • বৃহস্পতিবার ত্রিপুরায় পুরভোট। ইতিমধ্যেই পুরসভা ও নগরপঞ্চায়েত মিলিয়ে মোট ছ'টি বিনা প্রন্দ্বিন্দ্বিতায় জিতে গিয়েছে বিজেপি। বাকি ১৪ টিও গেরুয়া শিবিরের হাতে যাবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

    বৃহস্পতিবার আগরতলা সহ ত্রিপুরার সবকটি পুরসভা কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ। তার আগেই সব ভোটগ্রহণ কেন্দ্রকে স্পর্শকাতর বলে চিহ্নিত করল নির্বাচন কমিশন।

    ত্রিপুরা রাজ্যের নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, মোট ৬৪৪ টি কেন্দ্রের মধ্যে ৩৭০ টিকেই অতি স্পর্শকাতর বলে চিহ্নিত করা হয়েছে। বাকি ২৭৪ টি ভোটগ্রহণ কেন্দ্রকে স্পর্শকাতর হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে।

    জানা গিয়েছে, অতি স্পর্শকাতর ভোটকেন্দ্রের প্রতিটিতে থাকবেন ত্রিপুরা সশস্ত্র বাহিনীর পাঁচ জন করে জওয়ান। স্পর্শকাতর হিসাবে চিহ্নিত কেন্দ্রগুলিতে ত্রিপুরা স্টেট রাইফেলস এর চারজন করে জওয়ান থাকবেন।

    এর মধ্যে আগরতলা পুরসভায় বুথগুলির জন্য বাড়তি নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলেও জানানো হয়েছে। সেখানে কোনও পোলিং স্টেশনের মধ্যে থাকা একাধিক বুথের জন্য আলাদা করে ত্রিপুরা স্টেট রাইফেলস মোতায়েন থাকবে।

    ত্রিপুরার পুরনির্বাচনের আগে শাসক বিজেপি দলের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের অভিযোগ তুলেছে বিরোধী দলগুলি। বিরোধী দলের কর্মী এবং প্রার্থীরা বারবার আক্রান্ত হচ্ছেন বলে অভিযোগ করেছে তৃণমূল। এ নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয় জোড়ফুল শিবির। ত্রিপুরায় পুরভোট পিছনোর আর্জিও জানায় তৃণমূল।

    তবে তৃণমূলের এই আবেদন খারিজ করে সুপ্রিম কোর্ট ত্রিপুরা পুলিশকে শান্তিপূর্ণ এবং নিরপেক্ষভাবে ভোট করানোর নির্দেশ দিয়েছে। মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় এবং বিচারপতি বিক্রম নাথের দুই সদস্যের বেঞ্চ সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচনের জন্য ত্রিপুরা পুলিশকে বিশেষ কিছু নির্দেশ দিয়েছে।

    বুধবার ত্রিপুরার ডিজিপি, আই জি, রাজ্য নির্বাচন কমিশনকে বৈঠক করে রাজ্যে শাস্তি সুনিশ্চিত করতে বলা হয়েছে। সে জন্য আর কী পদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন তা জানাতে বলা হয়েছে সুপ্রিম কোর্টের তরফ থেকে।

    মঙ্গলবারই আগরতলা হাইকোর্ট বুথগুলি কতটা স্পর্শকাতর তা জানার নির্দেশ দেয় নির্বাচন কমিশনকে। তারপর এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে।

    এদিকে বিপ্লব দেবের সরকারের তথ্য অনুযায়ী, এই মুহূর্তে ত্রিপুরায় তিন ব্যাটেলিয়ন কেন্দ্রীয় বাহিনী রয়েছে। প্রয়োজন বোধ করলে আরও বাহিনীর আবেদন করতে পারে রাজ্য। ত্রিপুরা পুরসভা নির্বাচনের জন্য শেষ পর্যায়ের প্রস্তুতি সারা।

    আজ বৃহস্পতিবার ত্রিপুরা পুরসভা নির্বাচনের জন্য ভোট গ্রহণ করা হবে। তবে তার কয়েক ঘণ্টা আগে বুধবার সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে দেখা করে বিভিন্ন বিষয়ে নিজের মতামত ব্যক্ত করেছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। তার মধ্যে একটি হল ত্রিপুরায় রাজনৈতিক সন্ত্রাস।

    এদিন প্রধানমন্ত্রীকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ত্রিপুরায় কী সব হচ্ছে' আপনি বিষয়টি দেখুন। আমাদের লোকদের উপর সন্ত্রাস হচ্ছে। সায়নী ঘোষ একজন জনপ্রিয় শিল্পী, তার বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার মামলা রুজু করে তাঁকে গ্রেফতার করা হল। ওখানে গণতন্ত্র বিপন্ন। দু'দিন আগে দিল্লিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের কার্যালয়ের সামনে ধরনায় বসেছিলেন তৃণমূল সাংসদরা।

    তারপর অমিত শাহের সঙ্গে তৃণমূল সাংসদরা দেখা করে ত্রিপুরার বিষয়ে তাকে অবহিত করেন। অমিত শাহ আশ্বাস দেন, ত্রিপুরার পরিস্থিতি উন্নতি হবে। আর কোনও সন্ত্রাস হবে না। এবার প্রধানমন্ত্রীর কাছে এ বিষয়ে তদ্বির করলেন মমতা।

    এতদিন পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল রাজনৈতিক সন্ত্রাস করছিল, এমন অভিযোগ হামেশাই করেছিল বিজেপির শীর্ষনেতারা। এবার বিজেপি শাসিত রাজ্যের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের অভিযোগ তুলে প্রধানমন্ত্রী এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দ্বারস্থ হল তৃণমূল।
  • Link to this news (দৈনিক স্টেটসম্যান)