• করোনা প্রতিরোধে নেজাল স্প্রে আনছে আইটিসি, চলছে ট্রায়ালডিসেম্বরেই ভারতে স্পুটনিক লাইট
    বর্তমান | ২৬ নভেম্বর ২০২১
  • নয়াদিল্লি: ঠান্ডায় নাক বন্ধ হয়ে গেলে নেজাল স্প্রে নেওয়া হয়। এবার কি তাহলে করোনা প্রতিরোধে তেমনই স্প্রে আসছে? দেশীয় বহুজাতিক সংস্থা আইটিসি তেমনটাই ইঙ্গিত দিয়েছে। এই মর্মে তাদের ক্লিনিকাল ট্রায়ালও চলছে। স্যাভলন ব্র্যান্ডের আওতায় সেই স্প্রে বাজারে আসতে পারে। আইটিসি বৃহস্পতিবার এমনটাই জানিয়েছে।

    সূত্রের খবর, সংস্থার বেঙ্গালুরুর ‘লাইফ সায়েন্সেস অ্যান্ড টেকনোলজি সেন্টার’ (এলএসটিসি)-এ নেজাল স্প্রে নিয়ে বিজ্ঞানীরা গবেষণা চালাচ্ছেন। আইটিসির এক মুখপাত্র জানান, ‘যেহেতু ক্লিনিকাল ট্রায়াল চলছে, তাই এ বিষয়ে আমরা বিস্তারিত বলতে পারব না।’ একইসঙ্গে কোথায় গবেষণা চলছে, অনুমোদন মেলার পর কোন জায়গা থেকে বাণিজ্যিক উৎপাদন শুরু হবে, সে ব্যাপারেও কোনও মন্তব্য করতে চাননি তিনি। তবে সূত্রের খবর, এথিকস কমিটির অনুমোদন পেয়েছে আইটিসি। সংস্থা জানিয়েছে, নেজাল স্প্রেটি নিরাপদ এবং নাকের মাধ্যমে সার্স-কোভ-২ ঢোকা আটকানোর ক্ষমতা রাখে। প্রয়োজনীয় অনুমোদন পেয়ে গেলেই স্যাভলন ব্র্যান্ডের আওতায় তা বাজারে আসবে।

    এদিকে, আগামী ডিসেম্বর থেকেই ভারতের বাজারে মিলতে চলেছে স্পুটনিক লাইট ভ্যাকসিন। রাশিয়ান ডিরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ফান্ডের সিইও কিরিল দিমিত্রিয়েভ একথা জানিয়েছেন। পাশাপাশি, ১২-১৭ বছর বয়সিদের জন্য শীঘ্রই স্পুটনিক ভ্যাকসিনের অনুমোদন দিতে চলেছে সেদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রক। তবে, রাশিয়ায় করোনা সংক্রমণ নতুন করে মাথাচাড়া দিয়েছে। সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলিতে বেড়েছে মৃত্যুমিছিলও। অন্যদিকে, প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের শরীরে করোনা অ্যান্টিবডি কমে গিয়েছে। সেকারণে চিকিৎসকরা টিকা বুস্টার ডোজের পাশাপাশি নেজাল ভ্যাকসিনও দিয়েছেন। পুতিন নিজেই একথা জানিয়েছেন।
  • Link to this news (বর্তমান)