• দু'সপ্তাহে ৫০%, হু হু করে দাম বাড়ছে পেঁয়াজের, এখন কত?
    Aajtak | ১১ জুন ২০২৪
  • Onion Price Rise: বকরী ইদের আগে আগুন দাম পেঁয়াজের। বেশ কয়েকদিন ধরে আলুর দাম বেড়েছে। আগামী ১৭ জুন ইদ। তারওপর জামাইষষ্ঠী। বাজারে সব সবজি আনাজেরই চড়েছে দাম। বেশ কয়েকদিন আদার দামও চড়েছে। গত একমাস ধরে ২০ টাকার আলু পৌঁছে গেছে ৩০ টাকায়। পেঁয়াজে দাম বৃদ্ধির কারণ ইদের আগে চাহিদা বৃদ্ধি। গত দু'সপ্তাহে পেঁয়াজের দাম প্রায় ৩০-৫০% বেড়েছে। কেন্দ্র সরকার মুদ্রা নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে পেঁয়াজের দামে হস্তক্ষেপ করতে পারে।

    মহারাষ্ট্রে নাসিকের লাসলগাঁও মান্ডিতে, সোমবার পেঁয়াজের গড় পাইকারি দাম ছিল ২৬ টাকা প্রতি কেজি। গত ২৫ মে প্রতি কেজি যা ১৭ টাকা ছিল। ইতিমধ্যে, শীর্ষ-মানের পেঁয়াজের দাম, যা মোট ব্যবসার পরিমাণের একটি ছোট অংশ গঠন করে, মহারাষ্ট্র জুড়ে অনেক পাইকারি বাজারে প্রতি কেজি ৩০ টাকা ছাড়িয়ে গেছে। দাম বৃদ্ধির মূল কারণ সরবরাহ ও চাহিদার মধ্যে ভারসাম্যহীনতা।

    জুন থেকে বাজারে আসা পেঁয়াজগুলি কৃষক এবং ব্যবসায়ীদের মজুদ থেকে সংগ্রহ করা হয়। ২০২৩-২৪ সালের রবি ফসল হ্রাসের কারণে দাম বাড়বে বলে আশা করে কৃষকরা তাদের স্টক থেকে বিক্রি করতে অনিচ্ছুক।

    আবার ৪০% রপ্তানি শুল্কের কারণে রপ্তানি ধীরে হওয়া সত্ত্বেও, পেঁয়াজের অভ্যন্তরীণ চাহিদা শক্তিশালী রয়ে গেছে, বিশেষ করে ১৭ জুন ঈদ-উল-আদহাকে সামনে রেখে স্টক করেছে কৃষকেরা।

    হর্টিকালচার প্রডিউস এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি অজিত শাহ ব্যাখ্যা করেছেন, কৃষক এবং মজুতদাররা আশাবাদী যে সরকার রপ্তানি শুল্ক প্রত্যাহার করতে পারে। শাহ বলেছেন, "দাম বাড়ার একটি প্রধান কারণ হল কৃষক এবং মজুতদাররা আশাবাদী যে কেন্দ্রীয় সরকার রপ্তানি শুল্ক প্রত্যাহার করতে পারে। এই অনুমানের ভিত্তিতে, তারা দাম বাড়ার আশায় পেঁয়াজ সংরক্ষণ করে রেখেছে।" 

    জেলার বিভিন্ন বাজারেও পেঁয়াজ ৩০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। পাইকারিতে ১৮ থেকে ২২ টাকা দরে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে। পড়শি দেশে পেঁয়াজ রফতানি ও নাসিকের পেঁয়াজের আমদানি কম হওয়াতেও বাড়ছে দাম।
  • Link to this news (Aajtak)