• কাশী বিশ্বনাথ মন্দিরের সেবায়েতদের জুতো উপহার মোদির
    দৈনিক স্টেটসম্যান | ১২ জানুয়ারি ২০২২
  • কাশী বিশ্বনাথ মন্দির এবং মন্দির চত্বরে চামড়ার জুতো পরা নিষিদ্ধ। তাই মন্দিরের সেবায়েত এবং কর্মীরা খালি পায়েই চলাফেরা করেন। কাশী বিশ্বনাথ করিডর উদ্বোধন করতে গিয়ে বিষয়টি জানতে পেরেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

    এবার সেই সেবায়েত এবং কর্মীদের জন্য এক অনন্য উদ্যোগ নিলেন তিনি। পাঠালেন অভিনব উপহার। জানা গিয়েছে, কাশী বিশ্বনাথ ধামের সেবায়েত এবং কর্মীদের জন্য ১০০ জোড়া পাটের জুতো তৈরির বরাত দেন প্রধানমন্ত্রী।

    রঙ-বেরঙের কারুকার্য করা সেই সমস্ত জুতো ইতিমধ্যে প্রধানমন্ত্রীর লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত মন্দিরের সেবায়েত এবং কর্মীদের কাছে পৌঁছেও গিয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর পাঠানো উপহার পেয়ে স্বাভাবিকভাবেই খুশি মন্দিরের কর্মী এবং সেবায়েতরা।

    নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মন্দিরের এক কর্মী জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেয়ে আমরা খুবই খুশি। এটা আরও একবার প্রমাণ করে দিল প্রধানমন্ত্রী সকলের খুঁটিনাটির দিকে কতটা নজর রাখেন।

    প্রসঙ্গত, কাশী বিশ্বনাথ ধামের নয়া করিডর উদ্ভাধন করতে দু'দিনের সফরে বারাণসী গিয়েছেন মোদি। সেখানে উদ্বাধনের অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার পাশাপাশি মন্দির পুজো দিয়েছিলেন তিনি।

    সময় কাটিয়েছিলেন মন্দিরের কর্মীদের সঙ্গেও। সেই সময়ই তাঁর নজরে আসে সেবায়েত এবং কর্মীদের খালি পায়ে চলাফেরার বিষয়টি। তার পরই ১০০ জোড়া জুতো উপহারের সিদ্ধান্ত নেন তিনি।

    প্রায় ৩৩৯ কোটি টাকা ব্যয়ে নতুন করে সাজিয়ে তোলা হয়েছে কাশী বিশ্বনাথ ধাম। তার প্রথম পর্বের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। মোদির দাবি, ২০০-২৫০ বছর আগে কাশীর সংস্কারের কাজ হয়েছিল। তারপর এই প্রথম বিশ্বনাথ ধামের সংস্কারে এত কাজ হল।
  • Link to this news (দৈনিক স্টেটসম্যান)