• দুর্ঘটনার পর থেকে খোঁজ নেই আসানসোলের রেলকর্মীর, ঘুম উড়েছে পরিজনদের
    এই সময় | ১৫ জানুয়ারি ২০২২
  • এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: উত্তরবঙ্গের বিকানের-গুয়াহাটি এক্সপ্রেস ট্রেন দুর্ঘটনার পর থেকেই খোঁজ নেই আসানসোলের যুবক অজিত প্রসাদের (৩৩)। রেলকর্মী অজিত ওই ট্রেনেই ভ্রমণ করেছিলেন বলে তাঁর পরিবার এবং প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন। ট্রেন দুর্ঘটনার পর থেকেই তাঁর ফোন স্যুইচড অফ। রেলের তরফে এখনও অজিতের সম্পর্কে কিছু জানানো হয়নি। তবে মৃতদের মধ্যে জনৈক রেলকর্মীর দেহ থাকতে পারে বলে খবর মিলেছে। ফলে চরম উদ্বেগে অজিতের পরিবার থেকে বন্ধু-প্রতিবেশীরা। সকলের একটাই প্রার্থনা, ‘ভগবান করুক, যেন কিছু না হয়।’

    জানা গিয়েছে, আসানসোলের রাধানগর তালপুকুরিয়া এলাকার বাসিন্দা অজিত প্রসাদ ২০১৬ সালে রেলে চাকরি পেয়েছেন। বর্তমানে উত্তরবঙ্গের রঙ্গিয়া রেল ডিভিশনে ট্র্যাাকম্যান হিসেবে কর্মরত ছিলেন। বুধবার বিকালে কথা হয়েছিল পরিবারের সঙ্গে। পরিবারের লোকেরা বলছেন, ‘অজিত জানিয়েছিলেন যে, তিনি বিকানের-গুয়াহাটি এক্সপ্রেস ট্রেনে ভ্রমণ করছেন।’ তার কিছুক্ষণ পর TV-তে ওই ট্রেন দুর্ঘটনার খবর দেখে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন অজিতের সদ্য বিবাহিত স্ত্রী সহ সমগ্র পরিবার থেকে বন্ধু-বান্ধব ও প্রতিবেশীরা। বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টার পর থেকে বহুবার তাঁরা অজিতের মোবাইলে ফোন করেছেন। কিন্তু প্রত্যেকবারেই জবাব আসছে, ‘ফোন স্যুইচড অফ’। ফলে আতঙ্ক বাড়ছে।

    অন্যদিকে, শুক্রবার সকালে রেলের তরফে একটি খবর আসে, ময়নাগুড়ি হাসপাতালে একটি মৃতদেহ নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সেই মৃতদেহটি জনৈক রেলকর্মীর। তাঁর বয়স ৩০ থেকে ৩৫ বছর। এই খবর আসার পরেই সমগ্র রাধানগর তালপুকুরিয়া এলাকায় দুশ্চিন্তার ছায়া পড়েছে। নিজেকে সামলাতে পারছেন না অজিতের স্ত্রী। খাওয়া-দাওয়া ছেড়েছেন তিনি। অজিতের বন্ধু শম্ভু প্রসাদ বলেন, ‘মাত্র এক বছর আগে বিয়ে হয়েছিল অজিত প্রসাদের। এখন অজিত কী অবস্থায় রয়েছে তা ভেবে আমরা সকলে আতঙ্কিত।’

    যদিও সরকারিভাবে বা রেলের তরফে এখনও পর্যন্ত অজিত প্রসাদের বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি। দুর্ঘটনাগ্রস্তদের তালিকাতেও তাঁর নাম নেই। তবে আতঙ্ক ধরে রাখতে না পেরে বুকে পাথর চেপেই ইতিমধ্যে ময়নাগুড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন অজিতের পরিবারের লোকেরা। অজিতের কাকা বাবন প্রসাদ বলেন, ‘গতকাল ওই ট্রেনে ভ্রমণ করেছিল বলে আমরা জানতে পেরেছি। কিন্তু তারপর থেকে যোগাযোগ করে উঠতে পারছি না। আমরা খুব দুশ্চিন্তার মধ্যে রয়েছি। পরিবারের কয়েকজন ময়নাগুড়ি রওনা দিয়েছে। ভগবান করুক যেন ওর কিছু না হয়।’ এখন এটাই অজিতের পরিবার সহ সমগ্র রাধানগর তালপুকুরিয়াবাসীর প্রার্থনা।
  • Link to this news (এই সময়)