• কোভিড বিধি মেনে নবদ্বীপে পুণ্যস্নান
    বর্তমান | ১৫ জানুয়ারি ২০২২
  • সংবাদদাতা, নবদ্বীপ: কোভিড বিধি মেনেই মকর সংক্রান্তি উপলক্ষে বৈষ্ণবতীর্থ নবদ্বীপে পুণ্যস্নান করলেন বহু মানুষ। শুক্রবার ভোর থেকেই গঙ্গার বিভিন্ন ঘাটে স্নানের ধুম পড়ে। বাইরেরও বহু পুণ্যার্থী ভিড় করেছিলেন। কোভিড বিধি মেনেই রানিরঘাট, শ্রীবাসঅঙ্গনঘাট, বড়ালঘাট, পোড়াঘাট, চৈতন্য জন্মস্থানঘাটে স্নানপর্ব চলে। পরে তাঁরা গৌরাঙ্গ মন্দির, চৈতন্য জন্মস্থান মন্দির, পোড়ামা প্রাঙ্গণে মা পোড়ামা, ভবতারিণী এবং ভবতারণ ইত্যাদি মন্দির দর্শন করেন। পৌষ সংক্রান্তি উপলক্ষে ধামেশ্বর গৌরাঙ্গ মন্দির, শ্রীচৈতন্যজন্মস্থান, বলদেবজিউ মন্দির সহ বিভিন্ন মন্দিরে দেবতার উদ্দেশে পিঠেপুলি ভোগ নিবেদন করা হয়।

    মকর সংক্রান্তি উপলক্ষে নবদ্বীপ গৌরাঙ্গ সেতুর নীচে এবছরও গৌরভক্ত মিলনমেলার আয়োজন করা হয়েছে। সেখানে গৌরনিতাই মন্দিরে অষ্টপ্রহর নাম সংকীর্তনের আয়োজন করা হয়েছে। গৌরনিতাই মন্দিরের সেবাইত হরেকৃষ্ণ দাস বলেন, ২৫ বছর ধরে এখানে মকর সংক্রান্তি দিন থেকে পাঁচ দিনের মেলা ও বাউল গানের আয়োজন করা হয়। এবছর কোভিড পরিস্থিতির কারণে সমস্ত অনুষ্ঠানই কাটছাঁট করা হয়েছে। মেলাও বন্ধ রাখা হয়েছে। তবুও কয়েকজন দোকান পেতে বসেছেন। 

    আসানসোল থেকে মকর সংক্রান্তির পুণ্যস্নানে এসেছিলেন গৃহবধূ রত্নাকর বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, আমরা প্রায় ৬০ থেকে ৬২ জন ট্যুরিস্ট বাসে করে এখানে পুণ্যস্নানে এসেছি। স্নান সেরে মন্দির দর্শন করে ফিরে যাব।

    মুর্শিদাবাদের লালবাগ থেকে সপরিবারে এসেছিলেন পরিতোষ সরকার। তিনি বলেন, কোভিড বিধি মেনে ট্রেনে করে পরিবারের সকলকে নিয়ে পুণ্যস্নান করতে চৈতন্যধামে এসেছি।

    মাজদিয়ার স্বর্ণখালির বাসিন্দা সুখেন্দু বিশ্বাস বলেন,  দাদা, বউদি, ছেলে, মেয়েদের নিয়ে রানিরঘাট গঙ্গায় স্নান করেছি। করোনা সতর্কতা মেনে  বাড়ি থেকে অটো রিজার্ভ করেছিলাম। সরকারি স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাস্কও পরেছি সক঩লেই। মন্দির দর্শন হয়ে গিয়েছে। বাড়ি ফিরে যাচ্ছি।

    গৌরাঙ্গ মহাপ্রভু মন্দিরের অন্যতম সেবাইত সুদিন গোস্বামী বলেন, এদিন সকালে চিরাচরিত প্রথা মেনে বিষ্ণুপ্রিয়াদেবীর পরিবারের মায়েরা মহাপ্রভুর জন্য পিঠেপুলি তৈরি করেন। সরা পিঠে, রাঙা আলুরপুলি, দুধপুলি ইত্যাদি ভোগ নিবেদন করা হয়। কোভিড বিধি মেনে বেশকিছু পুণ্যার্থী মন্দিরে হাজির হয়েছিলেন।
  • Link to this news (বর্তমান)