• ওন্দায় উদ্ধার প্রাচীন মূর্তি গেল বিষ্ণুপুরের সংগ্রহশালায়
    বর্তমান | ১৫ জানুয়ারি ২০২২
  • নিজস্ব প্রতিনিধি, বাঁকুড়া: ওন্দায় দ্বারকেশ্বরের চর থেকে উদ্ধার হওয়া প্রাচীন মূর্তি ঠাঁই পেল বিষ্ণুপুরের সরকারি সংগ্রহশালায়। বাঁকুড়া জেলা প্রশাসনের নির্দেশে বৃহস্পতিবার রাতে ওন্দা থানার পুলিস আচার্য যোগেশচন্দ্র পুরাকীর্তি ভবনের হাতে মূর্তিটি তুলে দেয়। সেখানে ছিলেন বাঁকুড়ার ডিএসপি (ডিঅ্যান্ডটি) সুপ্রকাশ দাস, পুরাকীর্তি ভবনের কিউরেটর তুষার সরকার প্রমুখ। গত বছরের এপ্রিল মাসে ওন্দা থানার তপোবন গ্রামের কাছে দ্বারকেশ্বর নদের চরে বালি তোলার সময় মূর্তিটি উদ্ধার হয়। সেটি নিয়ে আসে ওন্দা থানার পুলিস। শেষে জেলা প্রশাসন মূর্তিটিকে তথ্য ও সংস্কৃতি দপ্তরের অধীনে থাকা বিষ্ণুপুরের আচার্য যোগেশচন্দ্র পুরাকীর্তি ভবনে রাখার অনুমতি দেয়।  বিষ্ণুপুরের মহকুমা শাসক অনুপ কুমার দত্ত বলেন, ওন্দা থানা এলাকায় উদ্ধার হওয়া মূর্তি গত বৃহস্পতিবার রাতেই সংগ্রহ শালায় নিয়ে আসা হয়েছে। জেলার বাসিন্দারা ওই মূর্তি দেখতে পারবেন। বিষ্ণুপুরের প্রয়াত প্রত্নতত্ত্ববিদ মানিকলাল সিংহের মূর্তি উন্মোচনের দিনই মূর্তিটি সংগ্রহে এল। বিভিন্ন সময়ে জেলা থেকে উদ্ধার হওয়া নানা মূর্তি পুরাকীর্তি ভবনে রয়েছে। তারসঙ্গে প্রাচীন পুঁথি সহ একাধিক উল্লেখযোগ্য সামগ্রীও স্থান পেয়েছে সংগ্রহশালার লাইব্রেরিতে। আচার্য যোগেশচন্দ্র পুরাকীর্তি ভবনের কিউরেটর বলেন, এই মূর্তিটি প্রাথমিকভাবে মনে হয়েছে বিষ্ণু দেবতার। তবে নিশ্চিত হয়ে বলার আগে এটির উপর গবেষণা প্রয়োজন। পাথর খোদাই করে মূর্তিটি তৈরি করা হয়েছিল। মূর্তিটির উচ্চতা চার ফুট তিন ইঞ্চি। একটি বেদি তৈরি করে তাতে মূর্তিটিকে রাখা হবে। তা দর্শনার্থীরা দেখতে পারবেন।
  • Link to this news (বর্তমান)