• ‘নতুন ভারতের মেরুদণ্ড হতে চলেছে স্টার্ট-আপ’, তরুণ শিল্পদ্যোগীদের বার্তা প্রধানমন্ত্রীর
    ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস | ১৫ জানুয়ারি ২০২২
  • ‘নতুন ভারত গড়বেন নতুন শিল্পদ্যোগীরা’, শনিবার দেশের কৃষি, স্বাস্থ্য সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রের ১৫০ স্টার্ট আপের সঙ্গে বৈঠকে বার্তা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর। ”নতুন ভারতের মেরুদণ্ড হতে চলেছে স্টার্ট-আপগুলি”, এদিনের ভার্চুয়াল বৈঠকে তরুণ শিল্পদ্যোগীদের এভাবেই উৎসাহিত করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

    শনিবারের এই বৈঠকে স্পেস, ইন্ডাস্ট্রি, সিকিউরিটি, পরিবেশ ও স্বাস্থ্য সংক্রান্ত একাধিক স্টার্ট আপ অংশ নিয়েছিল। দেশের বৃদ্ধি ও অগ্রগতিতে স্টার্ট আপের ভূমিকা এখন অনস্বীকার্য বলে মনে করেন প্রধানমন্ত্রী। এদিন তিনি বলেন, ”নতুন ভারত গড়বেন নতুন শিল্পদ্যোগীরা। স্টার্ট আপে নয়া সম্ভাবনার পথ খুলছে। আত্মনির্ভর ভারত ক্রমেই আরও আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠেছে।”

    সাম্প্রতিক বছরগুলিতে বিপুল সাফল্য উঠে এসেছে স্টার্ট আপগুলির ভাণ্ডারে। প্রধানমন্ত্রী এদিন জানিয়েছেন, ২০১৩-১৪ সালের ৪ হাজার পেটেন্টের তুলনায় গত বছরই ২৮ হাজার পেটেন্টে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। একইভাবে ২০১৩-১৪ সালে ৭০ হাজার ট্রেডমার্কের রেজিস্ট্রেশন হয়েছিল, ২০২০-২১ আর্থিক বছরে সেই সংখ্যা বেড়ে হয়েছে আড়াই লক্ষ। এদিন দিল্লি থেকে ভার্চুয়ালি এই বৈঠকে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে তরুণ শিল্পদ্যোগীরা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যোগ দেন এই বৈঠকে।

    প্রধানমন্ত্রী এদিন বলেন, ”আমাদের স্টার্ট আপ গুলি খেলার নিয়মই পাল্টে দিয়েছে। আমি মনে করি স্টার্ট আপগুলি ভবিষ্যতে ভারতের মেরুদণ্ড হতে যাচ্ছে। আসুন, আমরা ভারতের জন্য নতুন কিছু তৈরি করি, ভারত থেকেই তৈরি করি। ভারতে ৪২টি ইউনিকর্ন-সহ ৬০ হাজারের বেশি স্টার্ট আপ রয়েছে। ভারতের স্টার্ট-আপগুলির সোনালী যুগ শুরু হচ্ছে। দেশে উদ্ভাবন সংক্রান্ত প্রোগ্রাম শুরু হওয়ার কারণে বিশ্বব্যাপী উদ্ভাবন সূচকে ভারতের স্থান উন্নত হচ্ছে। ২০১৫ সালে ভারত ৮১ তম স্থানে ছিল এবং এখন ৪৬ নম্বরে উঠে এসেছে দেশ।”
  • Link to this news (ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস)