• 'এরপর বিবৃতি দিলেই...', কল্যাণ বিতর্কে কড়া বার্তা পার্থর
    এই সময় | ১৫ জানুয়ারি ২০২২
  • এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: কল্যাণ বিতর্কের ইতি টানতে এবার কড়া বার্তা দিলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee)। শনিবার বেহালায় দলীয় কার্যালয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, 'দলের বিরুদ্ধে কোনও মন্তব্য নয়। এতে দলের ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে। কারও কোনও বক্তব্য থাকলে দলের মধ্যেই তা বলুন।' নাম না করেই কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Kalyan Banerjee) উদ্দেশ করে তিনি এদিন বলেন, 'আমি দলের মহাসচিব হিসেবে সকলের সঙ্গে কথা বলছি। এরপর যারা দলের বিরুদ্ধে বিবৃতি দেবেন তাঁদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য দলকে জানাবে শৃঙ্খলা রক্ষা কমিটি। এই ধরণের বিবৃতি বন্ধ করুন।' পার্থ চট্টোপাধ্যায়, সুব্রত বক্সীদের নিয়ে শৃঙ্খলা রক্ষা কমিটি এদিন বৈঠক করে। সেই বৈঠকের পরই সাংবাদিক বৈঠকে স্পষ্ট বার্তা দেন পার্থ।

    বিতর্কের সূত্রপাত কোথায়?

    করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় একগুচ্ছ পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। তিনি বলেছিলেন, 'এই করোনা পরিস্থিতিতে আগামী দু'মাস মেলা, ভোট বন্ধ রাখা উচিত।' তাঁর এই পদক্ষেপ বিভিন্ন মহলে সাধুবাদ কুড়িয়েছিল। কিন্তু, এরই মধ্যে কটাক্ষের সুর শোনা গিয়েছিল দলেরই সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের গলায়। তিনি বলেছিলেন, 'দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক পদটি সর্বক্ষণের। এই পদে থেকে কারও ব্যক্তিগত মতামত থাকতে পারে না। বিভিন্ন বিষয়ে আমার ব্যক্তিগত মতামত রয়েছে। কিন্তু, দলীয় শৃঙ্খলার কথা মাথায় রেখেই তা প্রকাশ্যে বলা সম্ভব নয়। এই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের বিরুদ্ধাচারণ। এই মন্তব্যে রাজ্য সরকারকে চ্যালেঞ্জ করা হয়েছে।' এখানেই শেষ নয় ডায়মন্ডহারবারে (Diamond Harbour) ফুটবল প্রতিযোগিতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে কল্যাণ বলেন, 'ফুটবল প্রতিযোগিতায় বহু মানুষ উপস্থিত হয়েছিল। মুম্বই থেকে গায়ক নিয়ে এসে জলসাও হয়। সেখান থেকে কি সংক্রমণ ছড়ানোর সম্ভাবনা ছিল না?' কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই মন্তব্যের পালটা সরব হয়েছিলেন কুণাল ঘোষ। তিনি বলেছিলেন, 'যখন এই ফুটবল প্রতিযোগিতা হয়েছিল সেই সময় সংক্রমণ এত ছিল না। যাতে কোনওভাবেই ভিড় না হয় সেই জন্য অভিষেকও যাননি।' পালটা এই সাংসদকে তোপ দাগেন তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ (Kunal Ghosh) এবং সাংসদ অপরূপা পোদ্দার (Aparupa Poddar)।

    'শ্রীরামপুর নতুন সাংসদ চায়'

    এরই মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় 'শ্রীরামপুর নতুন সাংসদ চায়' বলে শুরু হয়েছে প্রচার। এদিকে শুক্রবার রাতে এই পোস্ট শেয়ার করেছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাই আকাশ বন্দ্যোপাধ্যায়ও (Akash Banerjee)। পোস্টের সঙ্গে জুড়েছেন বিশেষ বার্তাও। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই পোস্ট করে আকাশ লেখেন, 'নিজেকে হাস্যস্পদ না করে আশেপাশে ঘটে চলা পরিবর্তন সম্মানের সঙ্গে মেনে নিন।' এই পোস্টে কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম উল্লেখ নেই।
  • Link to this news (এই সময়)