• চরম অস্বস্তিতে রেল, ফাইল খতিয়ে দেখতে চাইছেন মন্ত্রীবউবাজারে বারবার একই সমস্যা কেন? উঠছে প্রশ্ন
    বর্তমান | ১৪ মে ২০২২
  • নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি: আড়াই থেকে তিন বছরের মাথায় কার্যত একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি। কলকাতার বউবাজারের ঘটনায় চরম অস্বস্তিতে রেল। বিষয়টি নিয়ে নড়েচড়ে বসছেন রেলমন্ত্রকের শীর্ষ কর্তারা। রেল সূত্রের খবর, এই সংক্রান্ত যাবতীয় ফাইল এবার খতিয়ে দেখতে চাইছেন রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব। কেন কলকাতা মেট্রো প্রকল্পের কাজে একই সমস্যা বারবার ঘটছে, সেটিই বুঝে নিতে চাইছেন অশ্বিনী বৈষ্ণব। পরিস্থিতি খতিয়ে দেখার জন্য শীঘ্রই কি বউবাজারে কোনও প্রতিনিধি দল পাঠাচ্ছে রেল বোর্ড? আপাতত এই প্রশ্নেই তুঙ্গে উঠেছে জল্পনা।

    আনুষ্ঠানিকভাবে রেলমন্ত্রক এ ব্যাপারে অবশ্য কিছু বলতে চায়নি। তবে রেল সূত্রের দাবি, বিষয়টিকে যথেষ্ট গুরুত্ব সহকারে দেখার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে কলকাতা মেট্রো রেল কর্পোরেশনকে। প্রসঙ্গত, কলকাতা মেট্রো রেল কর্পোরেশন লিমিটেডের (কেএমআরসিএল) আওতাতেই উল্লিখিত প্রকল্পটির কাজ হচ্ছে। বিগত কয়েক বছর ধরে সাধারণ বাজেটে বিভিন্ন রেল প্রকল্পের বরাদ্দে বাংলাকে বঞ্চনার অভিযোগ উঠছে মোদি সরকারের বিরুদ্ধে। এমনকী এই বঞ্চনার তালিকার রয়েছে কলকাতার একাধিক মেট্রো প্রকল্পও। তথ্যাভিজ্ঞ মহল মনে করছে, এই পরিস্থিতিতে যদি মেট্রো প্রকল্পের কাজ চলাকালীন সাধারণ মানুষকে সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়, শহরবাসীকে ঘরছাড়া হতে হয়, তাহলে কেন্দ্রবিরোধী ক্ষোভ আরও প্রবল হবে। একথা বিলক্ষণ জানেন আধিকারিকরা। ফলে পুরো বিষয়টি নিয়েই অতি-সক্রিয় হতে চাইছে রেল বোর্ড। ফলে বউবাজারের ঘটনার পুরো বিষয়টিই রেল বোর্ডের কড়া নজরদারিতে রয়েছে। এমনকী দ্রুত এই ব্যাপারে কলকাতা মেট্রো রেল কর্পোরেশন লিমিটেড কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে রেল বোর্ড রিপোর্টও চাইতে পারে। এ ব্যাপারে কলকাতা মেট্রো রেল কর্পোরেশন লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার (অ্যাডমিন) এ কে নন্দী বলেন, ‘এখনও পর্যন্ত রেল বোর্ডের প্রতিনিধিদলের সদস্যদের পরিদর্শনে আসার খবর আমার কাছে নেই। তবে রেল বোর্ড এক্ষেত্রে সর্বোচ্চ কর্তৃপক্ষ। তাই তারা আসতেই পারে। আমরাও সবরকমভাবে সহযোগিতা করব।’ রেল বোর্ড সূত্র জানিয়েছে, ঘটনার কারণ খতিয়ে দেখতে এবং সুরাহার উপায় খুঁজতে ও শিয়ালদহ থেকে এসপ্ল্যানেড পর্যন্ত অংশের কাজ দ্রুত শেষ করার জন্য টেকনিক্যাল দিশা পেতে কেএমআরসিএল শীঘ্রই বিশেষজ্ঞ কমিটিও গঠন করবে। 
  • Link to this news (বর্তমান)