• ঝাড়গ্রামে আরও বেশি হোম স্টে গড়ে তুলতে নির্দেশ মমতার
    এই সময় | ১৮ মে ২০২২
  • বুধবার সকালে মেদিনীপুরের (Midnapore) কলেজ ময়দানে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা তৃণমূল (TMC) কংগ্রেসের কর্মী সম্মেলনে কর্মীদের বার্তা দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। বক্তব্যের শুরুতেই দলের বুথ স্তরের কর্মীদের বেশি গুরুত্ব দেওয়ার বার্তা দেন তিনি। পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে কর্মীদের চাঙ্গা করতে একাধিক বার্তা দেন। আর মেদিনীপুরের কর্মিসভা শেষ করেই তিনি চলে যান ঝাড়গ্রামে। সেখানে প্রশাসনিক সভা করেন। ঝাড়গ্রামে আরও বেশি হোম স্টে গড়ে তোলার নির্দেশ দেন মমতা।

    প্রশাসনিক সভায় ঝাড়গ্রামে পর্যটকদের টানতে সেখানে আরও বেশি করে হোম স্টে গড়ে তোলার নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। হোম স্টে বাড়ানোর জন্য পর্যটন মন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেনকে তিনি বলেন, "সেলফ হেল্প গ্রুপের মেয়েদের নিয়ে ক্যাম্প তৈরি করো। এই সব জায়গায় অনেক পর্যটক আসতে চায়। আগে এখানে মানুষ আসতেন শুধুমাত্র স্বাস্থ্য সচেতনতার জন্য। কিন্তু, এখন মানুষ ঘুরতে আসে। এদিকে ঘুরতে এসে তাঁরা থাকার পান না। অনেক আদিবাসী ছেলেমেয়েরা চাকরি পাচ্ছে না। তাদের এই পর্যটনের সঙ্গে যুক্ত করে দাও।"

    বছর ঘুরলেই রাজ্যে পঞ্চায়েত নির্বাচন। আর তার আগে কর্মীদের চাঙ্গা করতে মাঠে নেমে পড়েছেন খোদ তৃণমূল সুপ্রিমো। মেদিনীপুরের সভা থেকে দলীয় কর্মীদের উদ্দেশে একাধিক বার্তা দেন তিনি। "আমি নয়, আমরা" হয়ে চলার বার্তা দিয়েছেন। মমতা বলেন, "তৃণমূল আমার সৃষ্টি। আর সেটা কখনও বৃথা যাবে না। আমি থেকে আমরা, আমরাই আগামীদিনে ভারতবর্ষ জয় করব। আসুন আমরা হয়ে কাজ করি। আমরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করলে দিল্লি মুঠোয় আসবে।"

    প্রসঙ্গত, তিন দিনের জেলা সফরে মঙ্গলবারই মেদিনীপুর পৌঁছান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। করেছেন প্রশাসনিক সভা। বুধবার কর্মিসভা করেন তিনি। রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে এই সভা থেকেই জেলার পঞ্চায়েত ভোটের প্রস্তুতির সূত্র বেঁধে দিয়েছেন। কর্মীদের উদ্বুদ্ধ করতে তৈরি করে দিয়েছেন নতুন স্লোগান। মেদিনীপুর থেকে বুধবার দুপরেই ঝাড়গ্রামে পৌঁছান মুখ্যমন্ত্রী। ঝাড়গ্রাম স্টেডিয়ামে প্রসাশনিক বৈঠক হয়। আগামীকাল একই জায়গায় দলের কর্মীদের নিয়ে সভা করবেন তিনি। এদিকে মমতার এই সভা শুরু করার আগে পানীয় জলের দাবিতে পশ্চিম মেদিনীপুরের (Paschim Medinipur) চন্দ্রকোণায় মুখ্যমন্ত্রীর কর্মী সভায় যাওয়ার রাস্তায় অবরোধ করেন স্থানীয় বাসিন্দারা। ঘটনাস্থলে যায় চন্দ্রকোনা থানার পুলিশ। স্থানীয়দের বুঝিয়ে তোলা হয় অবরোধ।
  • Link to this news (এই সময়)