• শাশুড়িকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন মদ্যপ জামাইয়ের, চাঞ্চল্য নানুরে
    এই সময় | ১৮ মে ২০২২
  • মদ্যপ জামাইয়ের হাতে খুন শাশুড়ি। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের (Birbhum) নানুর থানার (Nanur Police Station) মড্ডা গ্রামে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত শাশুড়ির নাম মাফুজা বিবি (৬০)। বাড়িতে ঢুকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ। তদন্ত শুরু করেছে নানুর থানার পুলিশ।

    জানা গিয়েছে, দেড় দশক আগে মাফুজা বিবির একমাত্র মেয়ে রুবির বিয়ে হয় ময়ূরেশ্বরের কাসেম শেখের সঙ্গে। মাফুজার স্বামী মারা যাওয়ার পর থেকে ঘর জামাই হিসাবে থাকতেন কাসেম। দম্পতির দুই ছেলেমেয়ে রয়েছে। অভিযোগ প্রতিদিন মদ্যপ অবস্থায় বাড়ি ফিরতেন কাসেম। কোনও কাজকর্ম করতেন না বলে পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন। বাধ্য হয়ে মাস তিনেক আগে আইনতভাবে বিবাহ বিচ্ছেদ করেন রুবি বিবি। এরপরেই মঙ্গলবার রাতে মদ্যপ অবস্থায় নানুরের মড্ডা গ্রামে শ্বশুর বাড়িতে ঢোকেন কাসেম। হাতে ছিল ধারালো অস্ত্র। ঘরে ঢুকে প্রথমে স্ত্রীর উপর আক্রমণ করে কাসেম। মাকে বাঁচাতে গিয়ে জখম হয় ১৬ বছরের মেয়ে।

    কাসেমের আকস্মিক হানার ঘটনায় চিৎকার চেঁচামিচি শুরু করে দেয় রুবী। পাশের ঘরেই ছিলেন কাসেমের শাশুড়ি। মেয়ে নাতনির চিৎকার শুনে ছুটে আসেন মাফুজা। সে সময় স্ত্রী মেয়েকে ছেড়ে দিয়ে শাশুড়িকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথারি আঘাত করতে থাকে কাসেম। রক্তাক্ত অবস্থায় সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ। শাশুড়িকে আঘাতের পরেই ঘটনাস্থল ছেড়ে পালিয়ে যায় কাসেম।

    রুবি বিবি বলেন, “রাত সাড়ে ন’টা নাগাদ মদ্যপ অবস্থায় বাড়িতে আসে কাসেম। আমি লোহার গেট বন্ধ করতে গেলে আমার হাতে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে। মেয়েকেও আঘাত করে। সে সময় মা পাশের ঘরে শুয়ে ছিলেন। আমাদের চিৎকার শুনে ছুটে এলে মাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাত করতে থাকে। বাড়িতেই মায়ের মৃত্যু হয়”।

    ঘটনার কথা জানাজানি হতে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পরে। খবর দেওয়া হয় নানুর থানার (Nanur Police Station) পুলিশকে। সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে এসে পুলিশ মাফুজা বিবির দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। পরিবারের লোকজনদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। পারিবারিক অশান্তির আক্রোশের জেরেই খুন করা হয়েছে বলে পুলিশের প্রাথমিক অনুমান। ঘটনার পর থেকে পলাতক কাসেম। অভিযুক্তের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে নানুর থানার পুলিশ।
  • Link to this news (এই সময়)