• ''ভারতের অবস্থা অনেকটা শ্রীলঙ্কার মতোই '', অর্থনীতি নিয়ে তোপ রাহুল গান্ধীর
    এই সময় | ১৯ মে ২০২২
  • অর্থনৈতিক সংকটে বিদ্ধ পড়শি দেশ শ্রীলঙ্কার (Economic Crisis of Sri Lanka) সঙ্গে ভারতের অবস্থার তুলনা টানলেন কংগ্রেস অধ্যক্ষ রাহুল গান্ধী। তিনি বলেন, ভারতের অবস্থাও শ্রীলঙ্কার মতো হতে চলেছে। নিজের বক্তব্যের সমর্থনে দুই দেশের অর্থনৈতিক একটি গ্রাফও টুইট করেন তিনি।

    টুইটে রাহুল গান্ধী লিখেছেন, ''নজর ঘুরিয়ে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করে লাভ নেই। তাতে সত্যিটা বদলাবে না।'' এরসঙ্গেই বেকারত্ব (Unemployment) , জ্বালানি (fuel prices), অশান্তি (communal violence) এই তিন ক্ষেত্রে দুই দেশের তুলনামূলক ছয়টি গ্রাফ পোস্ট করেন। গ্রাফ অনুযায়ী ২০১৭ থেকে দুদেশেই বেকারত্ব বেড়েছে। যা সর্বোচ্চ মাত্রা ছুঁয়েছে ২০২০-এ। পেট্রোলের দামের ক্ষেত্রেও শ্রীলঙ্কা ও ভারতের গ্রাফ একইরকম। ২০১৭ সালে জ্বালানির দামের সূচক দুদেশেই ঊর্ধ্বগামী যা ২০২১ -এ সর্বোচ্চ সীমায়। তৃতীয় গ্রাফে দুদেশেই অশান্তি (communal violence) সর্বোচ্চ সীমায় ২০২০-২১ সালে।

    অন্যদিকে, শ্রীলঙ্কার অবস্থা অত্যন্ত উদ্বেগজনক। সোমবার আমজনতার উদ্দেশে শ্রীলঙ্কার (Sri Lanka) সদ্য দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমসিংহের (Ranil Wickremesinghe) জানান, গোটা দেশের ভাঁড়ারে আর যেটুকু পেট্রল বাকি রয়েছে, তাতে খুব বেশি হলে আর মাত্র একদিনের জ্বালানির জোগান দেওয়া সম্ভব! কিন্তু, তারপর কী হবে? উত্তর জানা নেই প্রধানমন্ত্রীরও। তাঁর সাফ কথা, সামনের দিনগুলি অত্যন্ত কঠিন। তার জন্য দেশবাসীকে প্রস্তুত থাকতে হবে!

    মোদী সরকারের সমালোচনায় রাহুল গান্ধীর এই পোস্ট। শ্রীলঙ্কার মতোই অচিরে ভারতের অবস্থা হতে চলেছে বলে দাবি রাহুলের। শোনা যাচ্ছে, কংগ্রেস সভাপতি পদে ফের রাগাকে দেখা যাবে। কংগ্রেস সভাপতি হিসেবে রাহুলই যাতে ফের দায়িত্ব নেন, এই দাবি উঠেছে শতাব্দী প্রাচীন দলের অন্দরেই। কিন্তু, প্রত্যেকবারই সিদ্ধান্ত গ্রহণে নিজের অনিচ্ছা প্রকাশ করেছেন সোনিয়া-পুত্র। সূত্রের খবর, গত মার্চে কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে রাহুল এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গ্রহণের বিষয়ে বিবেচনা করছেন বলে জানিয়েছেন।

    জানা গিয়েছে, গত ১৪ মার্চ কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে দলের একাংশ দাবি জানান যে, কংগ্রেস সভাপতি পদে দায়িত্ব নিন রাহুল গান্ধী। ওই বৈঠকে কংগ্রেস সাংসদ অধীর চৌধুরীও বলেন, দলের সভাপতি পদে দায়িত্বভার এবার গ্রহণ করা উচিত রাহুলের।
  • Link to this news (এই সময়)