• Mayawati: বিরোধী বৈঠকে আমন্ত্রণ না পেয়ে গোঁসা, দ্রৌপদীকে সমর্থনের ঘোষণা মায়াবতীর
    এই সময় | ২৫ জুন ২০২২
  • রাষ্ট্রপতি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ফের একবার বিরোধী শিবিরে ফাটল প্রকাশ্যে। ইতিমধ্যে সরকারি দলের প্রার্থীকে সমর্থনের কথা জানিয়েছে ঝড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা এবং ওডিশার বিজু জনতা দল। এবার সেই তালিকায় নাম লেখাল BSP-ও। বিরোধীদের সমালোচনা করে দ্রৌপদীকেই সমর্থনের কথা ঘোষণা করলেন দলের সুপ্রিমো মায়াবতী।

    আদিবাসী সম্প্রদায়ের প্রতিনিধি দ্রৌপদী মুর্মুকে প্রার্থী করে বিরোধীদের ব্যাকফুটে ঠেলে দিয়েছে BJP। বিরোধী শিবিরে ভাঙন ধরিয়ে দ্রৌপদীকেই সমর্থনের কথা জানিয়ে দিয়েছে ঝাড়খণ্ডের শাসক দল JMM এবং ওডিশার শাসক দল BJD। এবার সরকারি প্রার্থীকে সমর্থন করলেন মায়াবতীও। শুধু সমর্থনই না, সেই সঙ্গে বিরোধীদের কড়া সমালোচনা করতে ছাড়লেন না তিনি। দ্রৌপদী মুর্মুকে সমর্থনের কারণ হিসেবে ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে BSP সুপ্রিমো বলেন, "আদিবাসী সমাজ রাজনৈতিক আন্দোলনের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। এর সঙ্গে BSP রাজনীতির একটি যোগ রয়েছে।" তাই দ্রৌপদী মুর্মুকে সমর্থনের সিদ্ধান্ত বলে জানান ময়াবতী। সরকারি প্রার্থীকে সমর্থন করলেও, NDA বা BJP-র বিরুদ্ধে BSP-র আন্দোলন চলবে বলে জানিয়ে দেন তিনি।

    বিরোধীদের সমালোচনাও শোনা গেল ময়াবতীর গলায়। প্রার্থী বাছাই নিয়ে বিরোধীরা তাঁর সঙ্গে কথা বলেননি বলে অভিমানের সুর শোনা গেল। বৈঠকেও ডাকাও হয়নি বলে দাবি তাঁর। যশবন্ত সিনহাকে প্রার্থী করে বিরোধী শিবির বর্ণবিদ্বেষী রাজনীতি করছে বলেও অভিযোগ করেন NSP সুপ্রিমো। রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে নিজেদের প্রার্থীকে জেতাতে হলে যে পরিমাণ ভোটের প্রয়োজন, তার থেকে ২ শতাংশ ভোট কম রয়েছে BJP তথা NDA প্রার্থীর। এই অবস্থায় সরকার পক্ষকে তাকিয়ে থাকতে হচ্ছে জোটের বাইরে ছোট দলগুলির উপর।

    ইতিমধ্যে ওডিশার নবীন পট্টনায়কের বিজু জনতা দলের সমর্থন পেয়ে গেছে গেরুয়া শিবির। বাড়তি হিসেবে পয়েছে JMM-এর সমর্থন। অন্ধ্রপ্রদেশের জগনমোহন রেড্ডিও সরকারি প্রার্থীকে সমর্থন করতে পারেন বলে খবর। মহারাষ্ট্রেও শিবসেনার মধ্যে ফাটলকে কাজে লাগাতে চাইছে BJP। এই অবস্থায় মায়াবতী দলের ভোটও নিশ্চিত করল গেরুয়া শিবির। পরিস্থিতি যা, তাতে দ্রৌপদী মুর্মুর জয় সময়ের অপেক্ষা বলে মনে করছেন ওয়াকিবহাল মহল।

    President Election 2022: মহিলা মুখেই ভরসা, দ্রৌপদী মুর্মুকে রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী ঘোষণা BJP-র

    তবে, হাত গুটিয়ে বসে নেয় বিরোধীদের প্রার্থী যশবন্ত সিনহা। বাজপেয়ী জমানায় অর্থমন্ত্রী থাকা ছাড়াও, বিদেশমন্ত্রকে দায়িত্ব। বাজেপেয়ী ঘনিষ্ঠদের সঙ্গে ভালো সদ্ভাবও রয়েছে তাঁর। মোদী জমানায় বাজপেয়ী ঘনিষ্টরা ব্রাত্য বলে ইতিমধ্যে উঠেছে। আর সেই ভোট নিজের দিকে আনতে তৎপর যশবন্ত। রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে পদপ্রার্থী হিসেবে ইতিমধ্যে মনোনয়ন দাখিল করেছেন দ্রৌপদী মুর্মু। সোমবার দেবেন যশবন্ত সিনহা। নির্বাচন আগামী ১৮ জুলাই। গণনা ২১শে। কোবিন্দ পরবর্তী দেশের রাষ্ট্রপতি কে, গণনা শেষ না হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষ করতে হবে।
  • Link to this news (এই সময়)