• Bishnupur: দীর্ঘদিন বন্ধ বিষ্ণুপুর মহকুমার একমাত্র বৈদ্যুতিক চুল্লি, সমস্যায় স্থানীয়রা
    এই সময় | ২৬ জুন ২০২২
  • গত ৩০ এপ্রিলের ঝড়ে চিমনি ভেঙে পড়ার প্রায় দু’ মাসের বেশি সময় বন্ধ বিষ্ণুপুর মহকুমার একমাত্র বৈদ্যুতিক শবদাহ চুল্লিটি। অভিযোগ, পুরসভার তরফে এই চুল্লি মেরামতির কোনও উদ্যোগ না নেওয়ায় সমস্যায় পড়েছেন ওই এলাকার মানুষ। এই মুহূর্তে পাশের কাঠের চুল্লিতেই শবদাহের কাজ চলছে বলে দাবি স্থানীয় বাসিন্দাদের। যত দ্রুত সম্ভব ওই বৈদ্যুতিক শবদাহ চুল্লিটি মেরামতির দাবি জানাচ্ছেন বিষ্ণুপুর মহকুমার মানুষ। শীঘ্রই এই বৈদ্যুতিক চুল্লি মেরামতির কাজ শুরু করা হবে বলে আশ্বাস বিষ্ণুপুর পুরসভার পুরপ্রধানের৷

    স্থানীয় বাসিন্দা শুভজিৎ দে বলেন, ‘‘অনেকেই শবদেহ নিয়ে আসছেন আর ঘুরে যাচ্ছেন। বিষয়টি জানালেও, মেরামতির কাজ শুরু করেনি প্রশাসন৷’’ এতে ভীষণ অসুবিধা হচ্ছে বলেও দাবি করেন তিনি৷ এই একমাসে প্রায় আট-ন’টা দেহ এসে ঘুরে গিয়েছে চুল্লি বন্ধ থাকায়৷ ওই বৈদ্যুতিক চুল্লির কর্মী মিলন লোহার বলেন, ‘‘৩০ এপ্রিল ঝড়ে চুল্লি ভেঙে পড়ার পর থেকে শবদাহ বন্ধ আছে। সেদিনের পর থেকে আজ অবধি কোনও মেরামতি কিছু হয়নি৷ এর ফলে সাধারণ মানুষ খুবই অসুবিধার সম্মুখীন হচ্ছে৷ স্থানীয় আট-দশটি দেহ এসেছে এর মধ্যে৷ এছাড়াও বাইরে থেকে দু’-তিনটি দেহ এসেছি৷ তাঁরা অন্যত্র নিয়ে গিয়ে দেহ দাহ করেছে৷ বিশেষ করে রাতের বেলায় সমস্যা হচ্ছে৷ বিষয়টি পুরসভাকে জানানো হয়েছে।’’

    তিনি আরও বলেন, ‘‘পুরসভার তরফে টেন্ডার ডাকা হয়েছিল বলে জেনেছি৷ বর্ধমানের একটি কোম্পানি প্রায় সাড়ে তিন লাখ টাকা মেরামতির জন্য চেয়েছে৷ সেই টাকা পুরসভার ফান্ডে না থাকায় পুরসভার পক্ষ থেকে মহকুমাশাসকের সঙ্গেও আলোচনা হয়েছে৷’’ তবে তাতে কত দূর কী হয়েছে, সেটা তিনি জানেন না বলেই জানান।

    বিষ্ণুপুর পুরসভার পুরপ্রধান গৌতম গোস্বামী বলেন, ‘‘PWD ও নির্মাণকারী সংস্থাকে জানানো হয়েছে। অর্ডার হয়ে গিয়েছে। PWD কাজটা করবে৷ দ্রুত কাজ শুরু হবে৷’’ BJP র বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলার সহ সভাপতি নীরজ কুমারের দাবি, পুর পরিষেবা দিতে ব্যর্থ এই বোর্ড। এক মাস ওই চুল্লিটি বন্ধ, যেখানে সস্তায় শবদাহ করা যেত। কিন্তু বর্তমানে অত্যধিক দামে কাঠ কিনে সেই কাজ করতে হচ্ছে। পুর কর্তৃপক্ষ থেকে মহকুমাশাসক, প্রত্যেকেই দলের কাজে ব্যস্ত৷ এঁরা প্রচারে আছেন, বাস্তবে কাজে নেই বলে তিনি দাবি করেন।
  • Link to this news (এই সময়)